তিস্তায় খাল খনন নিয়ে ভারতের কাছে পাঠানো চিঠির উত্তর আসেনি: পররাষ্ট্র সচিব 

সংগৃহীত ছবি

তিস্তায় খাল খনন নিয়ে ভারতের কাছে পাঠানো চিঠির উত্তর আসেনি: পররাষ্ট্র সচিব 

অনলাইন ডেস্ক

জি-টোয়েন্টি সম্মেলনের সাইড লাইনে ভারত ও বাংলাদেশ সরকারের প্রধানদ্বয় বৈঠক করবেন। সেখানে আলোচনায় তিস্তার জট খোলার ইস্যুসহ অভিন্ন নদীর পানি বণ্টন ও কানেক্টিভিটির বিষয় অগ্রাধিকার পাবে। রোববার (৩ আগস্ট) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জাতিসংঘের পানি সম্মেলনের অগ্রগতি নিয়ে বৈঠকের পর এসব কথা জানান পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন। তবে, তিস্তায় খাল খনন বিষয়ে জানতে চেয়ে ভারতের কাছে পাঠানো চিঠির উত্তর আসেনি বলেও জানান তিনি।

 

গত ২২ মার্চ নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত পানি সম্মেলনে সহ-সভাপতির দায়িত্ব পায় বাংলাদেশ। সম্মেলনে আসন্ন বছরগুলোতে বিশ্বের পানি সংকট, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে তৈরি ঝুঁকি মোকাবিলায় করণীয় নিয়ে আলোচনা করে সদস্য রাষ্ট্রগুলো।

সম্মেলনে বাংলাদেশের দেওয়া পরামর্শ ও প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের অগ্রগতি নিয়ে রোববার বৈঠক হয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে। পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীম, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সেখানে ছিলেন।

পরে সাংবাদিকদের পররাষ্ট্র সচিব বলেন, পানি সংকটের ঝুঁকি মোকাবিলায় আগাম সতর্কতা জরুরি।

আসন্ন জি-টোয়েন্টি সম্মেলনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অন্যান্য ইস্যুর সঙ্গে তিস্তা ইস্যুও গুরুত্ব পাবে বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব।

পশ্চিমবঙ্গের তিস্তায় খাল খননের বিষয়ে তথ্য চেয়ে দিল্লিতে চিঠি পাঠিয়েছিল ঢাকা। তবে তার উত্তর এখনো মেলেনি।

news24bd.tv/আইএএম

পাঠকপ্রিয়