বিএনপির লাফালাফি থাকবে নির্বাচন পর্যন্ত: শেখ হাসিনা   

সংগৃহীত ছবি

বিএনপির লাফালাফি থাকবে নির্বাচন পর্যন্ত: শেখ হাসিনা   

অনলাইন ডেস্ক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপির চুরিচামারি করে রাখা টাকা আন্দোলনের নামে বের হচ্ছে। দলটি বেশ লাফালাফি করছে। তাদের এ লাফালাফি থাকবে নির্বাচন পর্যন্ত। স্থানীয় সময় শুক্রবার নিউইয়র্কে এক নাগরিক সংবর্ধনায় তিনি এ কথা বলেন।

 

প্রধানমন্ত্রীর বাসবভন এখন খামার বাড়িতে পরিণত হয়েছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, কারও ওপর নির্ভরশীল নয়, নিজেরাই বাংলাদেশকে গড়ে তুলবো।  

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব পাওয়ার পর দেশের কোথাও কোনো মানুষ না খেয়ে মারা যায় না। ১৭ কোটি মানুষের দেশে ১৮ কোটি সিম ব্যবহার হয়।
 
সরকারপ্রধান বলেন, আওয়ামী লীগের কাজ আত্মমর্যাদাশীল দেশ গড়া, আর বিএনপির কাজ হাত পেতে চলা।

 

দেশের অর্থনৈতিক অঞ্চলে প্রবাসীদের বিনিয়োগের আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, রেমিট্যান্স না পাঠিয়ে দেশকে বেকায়দায় ফেলার চেষ্টা করছে বিএনপি।  

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা কাজে লাগিয়ে যারা দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে, এদের মুখোশ উন্মোচন করতে হবে।  

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ দেশ ও জনগণের সেবায় বিশ্বাস করে। আজকের বাংলাদেশ তার প্রমাণ বহন করে।  

তিনি বলেন, সরকারের ধারাবাহিকতা ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ছিল বলেই আজ উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হতে পেরেছে বাংলাদেশ।

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সেশনজট সৃষ্টি করেছিল। সেগুলো আওয়ামী লীগের আমলে দূর হয়েছে।  

এ সময় এতিমের টাকার লোভ যে সামলাতে পারেনি সে দেশকে কী দেবে- এমন প্রশ্ন রাখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিষয়ে তিনি বলেন, বিএনপি তত্ত্বাবধায়ক চায়, কিন্তু তারা কি পাগল আর শিশুর সন্ধান পেয়েছে?

news24bd.tv/আইএএম