কারাগারে হাজতির চোখ উপড়ে ফেলার ঘটনায় মানবাধিকার কমিশনের উদ্বেগ

ফাইল ছবি

কারাগারে হাজতির চোখ উপড়ে ফেলার ঘটনায় মানবাধিকার কমিশনের উদ্বেগ

অনলাইন ডেস্ক

নোয়াখালী জেলা কারাগারে হাজতির চোখ উপড়ে ফেলার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। কারাগারে এ ধরণের ঘটনা কোনোভাবেই কাম্য নয় বলে জানিয়েছে তারা।

সোমবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন জানায়, গত ১ অক্টোবর গণমাধ্যমে ‘কারাগারে হাজতির চোখ উপড়ে নিলো কয়েদি’ সংক্রান্ত প্রচারিত সংবাদের প্রতি জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের দৃষ্টি আকৃষ্ট হয়েছে।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, নোয়াখালীর জেলা কারাগারের নিচ তলায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত কয়েদির নাম নুর হোসেন বাদল। কারাগার কর্তৃপক্ষ জানায়, অভিযুক্ত মহিন উদ্দিনকে পুলিশে সোপর্দ করার পেছনে বাদলের মামাদের হাত রয়েছে।

আরও পড়ুন : কারাগারে ঘুমন্ত হাজতির ২ চোখ নষ্ট করে দিল কয়েদী

এতে আরও বলা হয়, আহত নুর হোসেনের চিৎকারে কারারক্ষী উদ্ধার করে তাকে হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ।

কমিশন মনে করে, বিষয়টি অত্যন্ত উদ্বেগজনক। কারাগারের মত নিরাপত্তা বেষ্টিত জায়গায় এ ধরণের ঘটনা কোনোভাবেই কাম্য নয়। ঘটনার বিষয়ে কারা কর্তৃপক্ষ দায় এড়াতে পারে না। উক্ত বিষয়টি তদন্তপূর্বক দায়ী ব্যক্তিদের চিহ্নিত করতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে আগামী ২১ অক্টোবরের মধ্যে কমিশনে প্রতিবেদন প্রেরণের জন্য সচিব, সুরক্ষা সেবা বিভাগকে বলা হলো।

এই রকম আরও টপিক