বিশ্বমানের যাত্রী সেবা দেবে থার্ড টার্মিনাল 

সংগৃহীত ছবি

বিশ্বমানের যাত্রী সেবা দেবে থার্ড টার্মিনাল 

সজল দাস

বিশ্বমানের যাত্রী সেবা নিশ্চিত করবে শাহজালাল বিমানবন্দরের থার্ড টার্মিনাল। আজ শনিবার (৭ অক্টোবর) দেশের গুরুত্বপূর্ণ এই মেগা প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কর্তৃপক্ষ বলছে, চালু হলে কমবে যাত্রী ভোগান্তী। আকাশপথের যাত্রীদের সেবা নিশ্চিতের পাশাপাশি দেশের আমদানি-রপ্তানিতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে থার্ড টার্মিনাল।

 

২০১৯ এর ২৯ ডিসেম্বর, স্বপ্নযাত্রার শুরু। প্রায় ২১ হাজার ৩৯৮ কোটি টাকা ব্যয়ের হয়রত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের থার্ড টার্মিনাল প্রকল্পের কাজ শুরু করে জাপানের মিতসুবিশি ও ফুজিতা এবং দক্ষিণ কোরিয়ার স্যামসাং। সরকারের সঙ্গে অর্থের বড় অংশের ঋণ সহযোগী হয় জাপানি সহযোগিতা সংস্থা জাইকা। প্রকল্পের পুরো প্রক্রিয়া চলবে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব বা পিপিপির মাধ্যমে।

 

শুরুর বছর খানেক পরই বিশ্বজুড়ে হানা দেয় অতিমারি করোনা। কিন্তু থামেনি থার্ড টার্মিনালের কাজ। অবশেষে সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। খুলছে থার্ড টার্মিনালের দুয়ার। শনিবার প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করছে দেশের স্বপ্নের এই প্রকল্প।

কতটুকু ভূমিকা রাখবে আকাশ পথের যাত্রীসেবা নিশ্চিতে? 

২ লাখ ৩০ হাজার বর্গমিটারের দৃষ্টিনন্দন তিনতলা টার্মিনাল ভবন। যার নকশা করেছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন স্থপতি রোহানি বাহারিন।

কর্তৃপক্ষ বলছে, এই টার্মিনাল দিয়ে বছরে এক কোটি ২০ লাখ যাত্রীকে সেবা দেওয়া সম্ভব হবে। যার মাধ্যমে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সক্ষমতা দুই কোটি ছাড়াবে। টার্মিনাল ভবনটির সঙ্গে যুক্ত হয়েছে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ও ভূগর্ভস্থ সুড়ঙ্গ পথ। যা সহায়ক হবে যাত্রীদের আগমন ও বহির্গমনের ক্ষেত্রে।

অত্যাধুনিক সব সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে এই টার্মিনালে। ১০টি স্বয়ংক্রিয় পাসপোর্ট কন্ট্রোল কাউন্টারসহ মোট ৬৬টি ডিপার্চার ইমিগ্রেশন কাউন্টার, ২৬টি বোর্ডিং ব্রিজ, ১৬টি ব্যাগেজ বেল্ট, ১৫টি সেলফ সার্ভিসসহ মোট ১১৫টি চেক ইন কাউন্টারের পাশাপাশি থাকবে ৫৯টি পাসপোর্ট চেক ইন কাউন্টার।

টার্মিনালের উত্তর পাশে ৩৬ হাজার বর্গমিটার ও ২৭ হাজার বর্গমিটার আয়তনের দুটি পৃথক কার্গো ভিলেজ থাকছে। যা দেশের আমদানি রফতানি সক্ষমতাও বাড়াবে।

এছাড়া, মাল্টিলেভেল কার পার্কিং ভবনে রাখা যাবে প্রায় এক হাজার ২৫০টি গাড়ি। অত্যাধুনিক অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা, লাউঞ্জ, ডিউটি ফ্রি শপ, বেবি কেয়ার সেন্টার, মুভি লাউঞ্জ, রেস্টুরেন্টসহ আন্তর্জাতিক মানের সব সুবিধা রয়েছে থার্ড টার্মিনালে।

news24bd.tv/আইএএম