ইসরায়েলে হামাসের হামলা, কী বলছে বিশ্ব

সংগৃহীত ছবি

ইসরায়েলে হামাসের হামলা, কী বলছে বিশ্ব

অনলাইন ডেস্ক

বিগত দু’বছরের মধ্যে ইসরায়েলে সবচেয়ে বড় ও প্রাণঘাতী হামলা চালাচ্ছে ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাস। এতে এখন পর্যন্ত ২২ ইসরায়েলির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন অন্তত ৫৪৫ জন। বেশ কয়েকজন ইসরায়েলি সেনাকে জিম্মি করেছে হামাস যোদ্ধারা।

গাজা সীমান্তের বেশ কয়েক জায়গায় গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ইসরায়েলিদের বসানো বেড়া।

আল-আকসা মসজিদের অমর্যাদা এবং অবৈধ বসতি স্থাপনকারীদের আগ্রাসনের প্রতিক্রিয়ায় এই ‘সামরিক অভিযান’ চালানো হচ্ছে বলে দাবি করেছে হামাস। তবে তাদের এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে পশ্চিমা বিশ্ব।

চেক প্রজাতন্তের পুরোনো মিত্র ইসরায়েলে ‘সন্ত্রাসী হামলা’ শুরু করায় হামাসের নিন্দা জানিয়েছে প্রাগ।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র প্রধান জোসেপ বোরেল ইসরায়েলের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন।

ফরাসি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘ইসরায়েল এবং এর জনগণের বিরুদ্ধে চলমান সন্ত্রাসী হামলার’ নিন্দা এবং ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পূর্ণ সংহতি প্রকাশ করছে ফ্রান্স।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রী জেমস ক্লিভারলি বলেছেন, ইসরায়েলে ফিলিস্তিনি ইসলামপন্থি দল হামাসের আকস্মিক হামলার ‘দ্ব্যর্থহীন নিন্দা’ জানায় যুক্তরাজ্য।

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক বলেছেন, তিনি ইসরায়েলে হামাসের হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডের লিয়েন বলেছেন, আমি দ্ব্যর্থহীনভাবে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে হামাস ‘সন্ত্রাসীদের’ পরিচালিত হামলার নিন্দা করছি।

ইসরায়েল-ফিলিস্তিন উত্তেজনা বৃদ্ধির জেরে ‘গুরুতর পরিণতি’ সম্পর্কে সতর্ক করেছে মিশর। সবাইকে ‘সর্বোচ্চ সংযম অনুশীলন এবং বেসামরিক নাগরিকদের বিপদের মুখে ঠেলে দেওয়া’ এড়ানোর জন্য আহ্বান জানিয়েছে তারা।

রাশিয়ার ডেপুটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিখাইল বোগদানভ জানিয়েছেন, সাম্প্রতিক উত্তেজনার জেরে ইসরায়েল, ফিলিস্তিনি ও আরব দেশগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করছে রাশিয়া। তিনি বলেছেন, এটি বলার অপেক্ষা রাখে না যে, আমরা সর্বদা সংযমের আহ্বান জানাই।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, জেরুজালেম এবং তেল আবিবের বেসামরিক জনগণের বিরুদ্ধে রকেট হামলাসহ ইসরায়েলে চলমান ‘সন্ত্রাসী হামলার’ তীব্র নিন্দা জানায় ইউক্রেন। আমরা ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার এবং তার জনগণের প্রতি সমর্থন প্রকাশ করি।

লেবাননের সশস্ত্র সংগঠন হিজবুল্লাহ বলেছে, তারা গাজা পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে এবং ‘ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ গোষ্ঠীর নেতৃত্বের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ রাখছে’।

সূত্র: রয়টার্স, আল-জাজিরা

news24bd.tv/A