স্থলপথে অভিযানে গিয়ে হামাসের হামলায় ইসরায়েলি সেনা নিহত

সংগৃহীত ছবি

স্থলপথে অভিযানে গিয়ে হামাসের হামলায় ইসরায়েলি সেনা নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিমান হামলার পাশাপাশি গাজায় স্থলপথে অভিযান শুরু করেছে ইসরায়েল। কিন্তু স্থিল পথে অভিযানে গিয়ে তারা হামাসের প্রতিরোধের মুখে পড়ছেন। রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) গাজায় অভিযান চালাতে গিয়ে হামাসের ওঁৎ পেতে থাকা যোদ্ধাদের হামলার শিকার হয়েছে ইসরায়েলের একদল সেনা। হামলায় এক ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছেন।

আহত হয়েছেন তিন জন। এ সময় ইসরায়েলের একটি ট্যাংক ধ্বংস করে দেওয়ারও দাবি করেছে হামাস যোদ্ধারা।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তারা বলেছে, গাজা উপত্যকায় স্থল অভিযান চালাতে গেলে ট্যাংকবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ওই সেনা নিহত হন।

হামাস যোদ্ধারা এই হামলা চালিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী বলেছে, গাজার খান ইউনিস এলাকায় হামাসের হাতে থাকা বন্দিদের অবস্থান শনাক্ত এবং ‘সন্ত্রাসী অবকাঠামোগুলো গুঁড়িয়ে দিতে’ এই অভিযান চালানো হয়েছিল।

এর আগে রোববার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে হামাসের সামরিক শাখা কাসাম ব্রিগেডস দাবি করেছে, হামলা চালিয়ে ইসরায়েলি বাহিনীকে ইসরায়েলের ভেতরে পিছু হটিয়ে দিয়েছে তাদের যোদ্ধারা। এ সময় একটি ট্যাংক ও দুটি বুলডোজার ধ্বংস করে দেওয়া হয়।

কাসাম ব্রিগেডস বলেছে, সীমান্ত অতিক্রম করে কয়েক মিটার এগোলেই ইসরায়েলি বাহিনীর একটি সাঁজোয়া দলের সঙ্গে গোপন অবস্থান থেকে পূর্ণ প্রস্তুতিসহ তাদের যোদ্ধারা লড়াইয়ে জড়ায়। অনুপ্রবেশকারী বাহিনীর সঙ্গে সাহসিকতার সঙ্গে যোদ্ধারা লড়াই চালিয়েছে। পরে নিরাপদে তারা ঘাঁটিতে ফিরেছে।

ইসরায়েলি বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়, সীমান্ত বেড়া অতিক্রম করে ভেতরে ঢুকতে গেলেই ওঁৎ পেতে থাকা হামাস যোদ্ধারা হামলা চালায়। তারা সরাসরি যোদ্ধাদের গুলির মুখে পড়েন। ইসরায়েলিদের জন্য এটা কঠিন হামলা ছিল।

news24bd.tv/আইএএম