মহাসমাবেশে 'বাগেরহাট বিএনপির ১০ হাজার নেতাকর্মী ঢাকায়'

মহাসমাবেশে 'বাগেরহাট বিএনপির ১০ হাজার নেতাকর্মী ঢাকায়'

 বাগেরহাট প্রতিনিধি:

সরকারের পদত্যাগের একদফা দাবিতে শনিবারের মহাসমাবেশে অংশ নিতে বাগেরহাট থেকে বিএনপির অন্তত ১০ হাজার নেতাকর্মী ঢাকায় গেছে। বাগেরহাট বিএনপির এসব নেতাকর্মীদের অধিকাংশই সাথে শুকনা খাবার নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন বিকল্প পথে ঢাকায় পৌঁছে গেছে বলে দাবি করেছে জেলা বিএনপি।  

বাগেরহাট জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ড. শেখ ফরিদুইল ইসলাম জানান, নেতাকর্মীরা যাতে ঢাকার মহাসমাবেশে যেতে না পারে এজন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হুমকি দিচ্ছে। কাড়াপাড়া যুবদল নেতা ওমর ফারুক, বারুইপাড়া ছাত্রদল নেতা সুমনকে মারধর করেছে।

বিভিন্ন এলাকায় নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সমাবেশে না যাওয়ার জন্য হুমকি-ধামকি দিচ্ছে। পাশাপশি পুলিশও গণগ্রেপ্তার শুরু করেছে। তবে কোন বাধা এই সমাবেশকে ভন্ডুল করতে পারবে না।  

ঢাকায় শনিবারের মহাসমাবেশ সফল করতে সব ধরণের প্রস্তুতি শেষ করেছি।

শুক্রবার বিকালের মধ্যে প্রতিটি উপজেলা ও পৌরসভাসহ সকল সাংগঠনিক ইউনিট থেকে নেতাকর্মীদের অধিকাংশই সাথে শুকনা খাবার নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন বিকল্প পথে ঢাকায় গেছেন। আমরা নের্তৃবৃন্দ আগেই ঢাকায় পৌঁছেছি। বাগেরহাট থেকে ১০ হাজার নেতাকর্মী ঢাকার শনিবারের মহাসমাবেশে অংশগ্রহণ করবে। এই সমাবেশের মাধ্যমেই সরকারের পতন ঘটবে।  

বিএনপির অভিযোগ অস্বীকার করে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. ভুইয়া হেমায়েত উদ্দিন বলেন, বিএনপির কোন সংগঠন নেই। ওদের কর্মীরা মূলত ঢাকায় যেতে চাচ্ছে না। তাই এসব মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করছে বিএনপি নেতারা। আমাদের দলের পক্ষ থেকে কাউকে বাধা দেইনি।

news24bd.tv/কেআই