তুরস্কের ওপর ক্ষোভ ঝাড়ল ইসরায়েল

তুরস্কের ওপর ক্ষোভ ঝাড়ল ইসরায়েল

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলি কোহেন বলেছেন, তুরস্ক থেকে কূটনীতিকদের ফিরে আসতে বলা হয়েছে কারণ, তুরস্কের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে নতুন করে ভাববেন তারা।

তুরস্ক থেকে গত সপ্তাহে সব কূটনীতিককে ফিরে আসার নির্দেশ দিয়ে আজ শনিবার (২৮ অক্টোবর) এমন কথা বললেন ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

গত কয়েকদিন ধরে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বর্বর ও নির্বিচার হামলার নিন্দা জানিয়ে আসছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। এছাড়া তুরস্কের রাজধানী আঙ্কায় সাধারণ মানুষ ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সভা-সমাবেশ করছেন।

আজ শনিবার আবারও নতুন করে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান বলেছেন, হামাস কোনো সন্ত্রাসী গোষ্ঠী নয়। এছাড়া তিনি ইসরায়েলকে দখলদার অভিহিত করে দাবি করেছেন, গাজায় চলমান এই সংঘাতের জন্য দায়ী পশ্চিমারা।

ইসরায়েরি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এলি কোহেন জানিয়েছেন, এরদোয়ান— হামাসের বিরুদ্ধে ইসরায়েলি সেনাদের চালানো অভিযানের ‘কঠোর’ সমালোচনায় করায় তুরস্কের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে তাদের নতুন করে ভাবতে হবে। আর এ কারণে কূটনীতিকদের ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে শনিবার লাখ লাখ মানুষের সমাবেশে দেওয়া ভাষণে এরদোয়ান হামাস সম্পর্কে তুরস্কের অবস্থানের পুনরাবৃত্তি করে বলেন, হামাস কোনো সন্ত্রাসী সংগঠন নয়, বরং স্বাধীনতাকামী। আর ইসরায়েল অবৈধ দখলদার।

তিনি বলেন, ‘আমরা সারা বিশ্বকে বলব, ইসরায়েল যুদ্ধাপরাধী। আমরা এর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। গাজায় গণহত্যার মূলহোতা পশ্চিম। ’ ইসরায়েলের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘পশ্চিমারা ইসরায়েলের কাছে ঋণী, কিন্তু তুরস্ক ঋণী নয়। ’

সূত্র- আল জাজিরা।

news24bd.tv/তৌহিদ

এই রকম আরও টপিক