নিউজিল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে সবার উপরে দক্ষিণ আফ্রিকা 

সংগৃহীত ছবি

নিউজিল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে সবার উপরে দক্ষিণ আফ্রিকা 

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার দেওয়া ৩৫৭ রান তাড়া করতে নেমে মুখ থুবড়ে পড়ে নিউজিল্যান্ডের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ। ন্যূনতম লড়াইও দেখাতে না পারা কিউইদের ১৯০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে প্রোটিয়ারা।

বিশ্বকাপের ৩২তম ম্যাচে আজ (বুধবার) পুনের ইকানা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় দুই হেভিওয়েট দল— দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ড। কিন্তু যে ধারণা নিয়ে ক্রিকেটবিশ্ব ম্যাচটি দেখতে বসেছিল, দু’দলের লড়াই সেভাবে জমে উঠেনি।

বড় রানতাড়ায় ন্যূনতম লড়াইও দেখাতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। বলতে গেলে প্রোটিয়াদের রানচাপায় পিষ্ট হয়েছে কিউইরা।

রানরেট আগে থেকেই বেশি। নিউজিল্যান্ডকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সেটা আরও বাড়িয়ে নিয়েছে প্রোটিয়ারা।

এতে করে তারা ভারতের সমান ১২ পয়েন্ট নিয়ে উঠে গেছে পয়েন্ট তালিকায় সবার ওপরে।

মাথার ওপর বিশাল রানের বোঝা। তাড়া করতে হবে ৩৫৮। প্রোটিয়া বোলারদের তোপে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে নিউজিল্যান্ড। ৬৭ রান তুলতে ৪ আর ১০০ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে লাথামের দল। শেষ পর্যন্ত ৩৫.৩ ওভারে ১৬৭ রানে অলআউট হয়েছে কিউইরা।

বড় লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতেই চাপে পড়ে নিউজিল্যান্ড। দলীয় ৮ রানের মাথায় মার্কো জানসেনের শিকার হয়ে ফেরেন ডেভন কনওয়ে (২)। এরপর রাচিন রাবিন্দ্রকেও (৯) দশের নিচে আউট করেন জানসেন।

চাপ কাটাতে উইল ইয়ং চালিয়ে খেলছিলেন। কিন্তু ৩৭ বলে ৩৩ করা এই ব্যাটারকে উইকেটরক্ষকের ক্যাচ বানান কোয়েটজি। অধিনায়ক টম লাথামও সুবিধা করতে পারেননি। ৪ রান করে কাগিসো রাবাদার বলে কভারে কেশভ মহারাজকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। ৬৭ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে নিউজিল্যান্ড।

হাল ধরতে চেয়েছিলেন ড্যারেল মিচেল। কিন্তু ২৪ রান করে তিনি হন কেশভ মহারাজের শিকার। বাঁহাতি এই স্পিনারের ঘূর্ণিতে বোল্ড হন মিচেল স্যান্টনারও (৭)। ১০০ রানে ৬ উইকেট হারায় কিউইরা।

শেষদিকে গ্লেন ফিলিপস একা লড়াই করে ১৬৭ পর্যন্ত নিয়ে গেছেন দলকে। ৫০ বলে ৬০ করে শেষ ব্যাটার হিসেবে আউট হয়েছেন তিনিই।

দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁহাতি স্পিনার কেশভ মহারাজ ৪৬ রানে নিয়েছেন ৪টি উইকেট। ৩১ রানে মার্কো জানসেন ৩টি এবং ৪১ রানে জেরাল্ড কোয়েটজি নেন দুটি উইকেট।

এর আগে সাত ম্যাচের মধ্যে আজ (বুধবার) পঞ্চমবার তিনশোর্ধ্ব রান তুলেছে প্রোটিয়ারা। এবার প্রোটিয়া ব্যাটারদের তাণ্ডবের শিকার নিউজিল্যান্ড। জোড়া সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন কুইন্টন ডি কক আর রসি ফন ডার ডুসেন। ৫০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৩৫৭ রানের পাহাড় গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা।  

পুনেতে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটিং দিয়ে যেন বিপদেই পড়ে টম লাথামের দল।

যদিও টেম্বা বাভুমা বরাবরের মতো ব্যর্থ হয়েছেন। উদ্বোধনী জুটিতে ৩৮ রান উঠে, বাভুমা ২৪ করে সাজঘরে ফেরেন। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে ১৮৯ বলে ২০০ রানের বিধ্বংসী জুটি গড়েন ডি কক আর ডুসেন।

কুইন্টন ডি কক এই বিশ্বকাপের পর ওয়ানডে থেকে অবসরে যাবেন, বলে রেখেছেন আগেই। বিদায়ী বিশ্বকাপে রীতিমত স্বপ্নের ফর্মে দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটরক্ষক এই ব্যাটার।

চলতি বিশ্বকাপে সপ্তম ম্যাচ খেলতে নেমে চতুর্থ সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটার। আজ (বুধবার) নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছেন ছক্কা মেরে, ১০৩ বলে। এর আগে চলতি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া আর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সেঞ্চুরি হাঁকান ডি কক। আজ ১১৬ বলে ১০ চার আর ৩ ছক্কায় তার ব্যাট থেকে এসেছে ১১৪ রান।

ডি ককের পর সেঞ্চুরি পূরণ করেন ডুসেনও। ১০১ বল লাগে তার তিন অংকের ম্যাজিক ফিগার ছুঁতে। ১১৮ বলে ১৩৩ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন ডুসেন, যে ইনিংসে ৯টি চারের সঙ্গে ৫টি ছক্কা হাঁকান এই ব্যাটার।

শেষদিকে ডেভিড মিলার ৩০ বলে ২ চার আর ৪ ছক্কায় খেলে ৫৩ রানের ক্যামিও। ৭ বলে অপরাজিত ১৫ করেন হেনরিখ ক্লাসেন। শেষ ১০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ১১৯ রান তোলে প্রোটিয়ারা।

নিউজিল্যান্ডের পেসার টিম সাউদি ৭৭ রানে নেন ২টি উইকেট।

news24bd.tv/আইএএম