বিতর্কিত টাইমড আউট: যে ব্যাখ্যা দিলো এমসিসি

সংগৃহীত ছবি

বিতর্কিত টাইমড আউট: যে ব্যাখ্যা দিলো এমসিসি

অনলাইন ডেস্ক

চলতি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে ঘটনাবহুল ম্যাচে টাইমড আউট হন শ্রীলঙ্কার তারকা ক্রিকেটার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। এ নিয়ে গোটা বিশ্বে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। আলোচিত ইস্যুতে দুই ভাগে ভাগ হয়ে পড়েন ক্রিকেট বিশ্বের রথী-মহারথীরা।  

ম্যাথিউসকে টাইমড আউট করায় সাকিব আল হাসানের ক্রিকেটীয় চেতনা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন অনেকে।

তবে কেউ কেউ টাইগার অধিনায়ক এবং আম্পায়ারদের আবেদনকে সঠিক বলে রায় দেন। কারণ, সেই নিয়ম ক্রিকেটেই আছে। আবার অনেকে ম্যাথিউসের পক্ষ নেন।

গত ৫ দিন ধরে এ নিয়ে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

তবে এসময়ে মুখে কুলুপ এঁটেছিল মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)। অবশেষে মুখ খুললো ক্রিকেটের আইন প্রণয়নকারী সংস্থা।

এমসিসি সাফ জানিয়ে দিয়েছে, আম্পায়াররা সঠিক সিদ্ধান্তই নিয়েছেন। কারণ, তাদের বিকল্প  কোনও উপায় ছিল না। বাংলাদেশ দলও কোনও ভুল করেনি। নিয়মের মধ্যে থেকেই কাজ করেছে তারা।  

ফক্স স্পোর্টসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এই ঘটনায় ম্যাথিউসের ওপর দোষ চাপিয়েছে এমসিসি। তিনিই ভুল করেছেন। ফলে তথাকথিত বিতর্কিত আউট হয়েছেন লঙ্কান অভিজ্ঞ ক্রিকেটার।  

এক বিবৃতিতে ক্রিকেটের আইন প্রণয়নকারী সংস্থা জানিয়েছে, ওই ম্যাচে প্রথম বল মোকাবিলা করতে ২ মিনিটের বেশি সময় নিয়েছেন ম্যাথিউস। ফলে তাকে টাইমড আউট দেয়া হয়েছে।  

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো এই নিয়ম কার্যকর হয়। এতে ক্রিকেটের স্পিরিট নিয়ে বিতর্কের ডালপালা গজায়। কারও কারও প্রশ্ন, এটাই কী আইনের প্রকৃত বাস্তবায়ন?    

পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাখ্যায় এমসিসি জানিয়েছে, ম্যাথিউসের উচিত ছিল বিষয়টি নিয়ে আম্পায়ারকে সংকেত দেয়া। তার হেলমেট ছিঁড়ে গিয়েছিল, সেই কথা জানানো। সর্বোপরি, প্রথম বল মোকাবিলা করার জন্য আরও সময় চাওয়া। কিন্তু এর কোনোটিই করেননি তিনি। ফলে দোষটা লঙ্কান ক্রিকেটারেরই।

news24bd.tv/AA