হাত-পায়ের রগ কেটে যুবলীগ নেতাকে হত্যা

সংগৃহীত ছবি

হাত-পায়ের রগ কেটে যুবলীগ নেতাকে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে জাহিদুল ইসলাম (৩৮) নামে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে এবং হাত-পায়ের রগ কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। একই ঘটনায় রাকিব নামে আরো একজনকে কুপিয়ে আহত করা হয়। রোববার (১২ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার সুন্দরগঞ্জ-বামনডাঙ্গা সড়কের শাখা মারা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জাহিদুল ইসলাম সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সোনারায় ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি ছিলেন।

তিনি পশ্চিম বৈদ্যনাথ গ্রামের আবুল হোসেন মেম্বারের ছেলে।

জানা গেছে, রাতে জাহিদুল ইসলাম ও রাকিব মিয়া মোটরসাইকেলে বামনডাঙ্গা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে শাখা মারা ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে কয়েকজন দুর্বৃত্ত তাদের পথরোধ করে। তারা জাহিদুল ইসলামকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে এবং ধারাল অস্ত্র দিয়ে হাত ও পায়ের রগ কেটে দেয়।

এ সময় জাহিদুল ইসলাম ও রাকিবের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে আশঙ্কাজনক অবস্থায় জাহিদকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম সরকার লেবু বলেন, পরিকল্পিতভাবে জামায়াত-শিবিরের সন্ত্রাসীরা জাহিদুল ইসলামকে রগ কেটে হত্যা করেছে। তিনি দ্রুত হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আমিরুজ্জামান বলেন, বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

news24bd.tv/আইএএম