স্ত্রীর ঘুসিতে প্রাণ গেল স্বামীর 

প্রতীকী ছবি

স্ত্রীর ঘুসিতে প্রাণ গেল স্বামীর 

অনলাইন ডেস্ক

জন্মদিন পালনের জন্য দুবাই নিয়ে যেতে অস্বীকৃতি জানানোর কারণে স্ত্রীর ঘুসিতে ভারতের পুনেতে এক স্বামীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার পুনের ওয়ানাভদি এলাকায় একটি অভিজাত আবাসিক সোসাইটির অ্যাপার্টমেন্টে এ ঘটনা ঘটে। খবর এনডিটিভির।  

খবরে বলা হয়, ৬ বছর আগে নির্মাণ শিল্পের সঙ্গে জড়িত ব্যবসায়ী নিখিল খান্নার (৩৬) সঙ্গে রেনুকার (৩৮) বিয়ে হয়।

ভালোবাসার বিয়ে ছিল তাদের। শুক্রবার জন্মদিন উপলক্ষ্যে দুবাই নিয়ে যাওয়ার বায়না ধরেন রেনুকা। কিন্তু তাতে অস্বীকৃতি জানান নিখিল। এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয় দুজনে মধ্যে।
একপর্যায়ে নিখিলের নাকের ওপর ঘুসি মারেন রেনুকা।  

ওয়ানাভদি পুলিশ স্টেশনের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেছেন, ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকালে।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, জন্মদিন পালন করতে রেনুকাকে দুবাই নিতে অস্বীকৃতি জানান নিখিল। এ নিয়ে তাদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়। এমনকি জন্মদিন ও বিয়েবার্ষিকীতে দামি উপহার না দেওয়া নিয়ে রেনুকা তীব্র ঝাঁজালো বাক্যবিনিময় করেন। রেনুকা দিল্লিতে গিয়ে আত্মীয়দের সঙ্গে জন্মদিন পালন করার খায়েস জানান। তার পক্ষেও রায় দেননি নিখিল।  

এতে হতাশ হয়ে পড়েন রেনুকা। একপর্যায়ে নিখিলের মুখে ঘুসি মারেন রেনুকা। এত জোরে ঘুসি মারেন যে, তাতে নিখিলের নাক ও কয়েকটি দাঁত ভেঙে যায়।  

এতে প্রচণ্ড রক্তপাত হয়। চেতনা হারান নিখিল। একপর্যায়ে তিনি মারা যান। এ অভিযোগে রেনুকার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির অধীনে মামলা হয়েছে। আরও তদন্তের জন্য তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

news24bd.tv/কেআই

পাঠকপ্রিয়