৩১০ রানে প্রথম দিনের খেলা শেষ করলো বাংলাদেশ 

সংগৃহীত ছবি

৩১০ রানে প্রথম দিনের খেলা শেষ করলো বাংলাদেশ 

অনলাইন ডেস্ক

সিলেট টেস্টের প্রথম দিনের প্রথম দুই সেশন ভালোই কাটিয়েছিল বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে আসে ১৮৪ রান। তবে শুরুর মতো শেষটা করতে পারেনি টাইগাররা। চা বিরতির পর দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে আরও ৫ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা।

৮৫ ওভারে দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে ৯ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩১০ রান।  

আগামীকাল বুধবার বাংলাদেশের হয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন বোলার শরীফুল ইসলাম (১৩) ও তাইজুল ইসলাম (৮)।

আজ মঙ্গলবার সিলেট আন্তর্জাতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মন্দ করেনি বাংলাদেশ। দুই ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয় ও জাকির হাসান ভালোই খেলছিলেন।

তবে ১৩তম ওভারের তৃতীয় বলে এজাজ প্যাটেলের দুর্দান্ত এক স্পিন ভেলকিতে বোল্ড হন জাকির। ১২ রান করে সাজঘরে ফিরতে হয় তাকে।

৩৯ রানে উদ্বোধনী জুটি ভাঙার পর শান্ত উইকেটে এসেই পাল্টা আক্রমণ শুরু করেন, দ্রুত গতিতে তুলতে থাকেন রান। বেশ কয়েকবার ডাউন দ্য উইকেটে এসে চার-ছক্কাও হাঁকিয়েছেন তিনি। তবে ২৫তম ওভারে পার্ট টাইমার গ্লেন ফিলিপসের ফুলটস বল সামনে এগিয়ে মারতে এসে মিড-অনে কেন উইলিয়ামসনের হাতে ধরা দেন। ৩৫ বলে ৩৭ রান করেন শান্ত। এর মধ্যে ছক্কার মারই ছিল তিনটি।

মধ্যাহ্নবিরতিতে যাওয়ার আগে আর কোনো বিপদে অবশ্য পড়েনি টাইগাররা। মুমিনুলকে নিয়ে জয় সাবধানে শেষ করেন সকালের বাকি সেশন। এ দুজনে দ্বিতীয় সেশনেও খেলছিলেন চমৎকার। এজাজকে চার মেরে টেস্টে পঞ্চম ফিফটি তুলে নেন জয়। এই ডানহাতি ওপেনার হাঁটছিলেন দ্বিতীয় সেঞ্চুরির পথেই। তবে ৫৪তম ওভারে ঈশ সোধির নিরীহ এক ডেলিভারিতে ডেরিল মিচেলকে ক্যাচ দেন তিনি। ৮৬ রান করে ফেরেন তিনি। এর আগের ওভারে বিদায় নেয় মুমিনুল হকও। গ্লেন ফিলিপসের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ৩৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই বাঁহাতি ব্যাটার।

চা বিরতি থেকে ফিরলে দলের হয়ে হাল ধরতে পারেননি কেউ। একবার রিভিউ নিতে বাঁচলেও মুশফিকুর রহিম ব্যক্তিগত ১২ রানে নিজের উইকেট দিয়ে আসেন এজাজকে। মেহেদী হাসান মিরাজ ২০ রানে কাইল জেমিসনের বাউন্সারে ক্যাচ তুলে দেন। অভিষিক্ত সাহাদাত হোসেন দীপুর শুরুটা ভালো হলেও, ২৪ রানের বেশি করতে পারেননি। ফিলিপসের তৃতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি। এরপর এই স্পিনার ফেরান নুরুল হাসান সোহানকেও (২৯)।

এই ইনিংসে বাংলাদেশের ৪ উইকেট একাই পকেটে পোরেন ফিলিপস। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এটাই তার সেরা বোলিং ফিগার। দিনের শেষভাগে স্পিনার নাঈম হাসানের উইকেট নেন জেমিসন।

news24bd.tv/SHS

পাঠকপ্রিয়