শেষ রাতে মহানবী (সা.)-এর আমল

সংগৃহীত ছবি

শেষ রাতে মহানবী (সা.)-এর আমল

অনলাইন ডেস্ক

শেষ রাতের আমল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পবিত্র কোরআন ও হাদিসে শেষ রাতে বিভিন্ন আমলের ওপর উৎসাহ দেওয়া হয়েছে। মহান আল্লাহ ইরশাদ করেন, ‘নিশ্চয়ই রাতে জাগরণ প্রবৃত্তি দমনে অধিক সহায়ক এবং স্পষ্ট উচ্চারণে অনুকূল। ’ (সুরা : মুজ্জাম্মিল, আয়াত : ৬)

দোয়া ও ইসতিগফার : শেষ রাতে আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করা, দোয়া করা ও কোনো কিছু চাইতে উৎসাহ দেওয়া হয়েছে।

আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘আমাদের রব প্রতি রাতে দুনিয়ার আসমানে অবতরণ করেন, যখন রাতের এক-তৃতীয়াংশ বাকি থাকে। তিনি বলেন—কে আমাকে ডাকবে, আমি তার ডাকে সাড়া দেব। কে আমার কাছে চাইবে, আমি তাকে দেব; কে আমার কাছে ক্ষমা চাইবে, আমি তাকে ক্ষমা করব। ’ (সহিহ বুখারি, হাদিস : ১১৪৫)

আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা : অন্য হাদিসে এসেছে, রাসুল (সা.) বলেছেন, রাতে আল্লাহ তার দয়ার হাত প্রসারিত করেন যেন দিবসের অপরাধী তার কাছে তাওবা করে।

এমনিভাবে দিনে তিনি তার হাত প্রসারিত করেন, যেন রাতের অপরাধী তাঁর কাছে তাওবা করে। এমনিভাবে দৈনন্দিন চলতে থাকবে পশ্চিম দিগন্ত থেকে সূর্য উদিত হওয়া পর্যন্ত। (মুসলিম, হাদিস : ৬৮৮২

সাধ্যমতো নফল নামাজ পড়া : শেষ রাতের নামাজ পড়ার প্রশংসা করা হয়েছে। পবিত্র কোরআনে মহান আল্লাহ বলেন, ‘আর রাতের কিছু অংশে তাহাজ্জুদ আদায় করো তোমার অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে। ’

news24bd.tv/আইএএম

এই রকম আরও টপিক