মোংলা সমুদ্র বন্দরের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

মোংলা সমুদ্র বন্দরের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে মোংলা বন্দরের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) সকালে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজন শুরু করা হয়। পরে বন্দর জেটিতে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

৭৩ বছর আগে ১৯৫০ সালের ১ ডিসেম্বর দেশের সামুদ্রিক বন্দর হিসেবে যাত্রা শুরু করে মোংলা।

একই বছর ১১ ডিসেম্বর পশুর নদীর জয়মনির ঘোলে ‘দি সিটি অব লিয়নস’ নামের একটি ব্রিটিশ বাণিজ্যিক জাহাজ নোঙরের মাধ্যমে প্রথম মোংলা বন্দরের কার্যক্রম শুরু হয়।

মোংলা বন্দর কর্তপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মীর এরশাদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন খুলনার শিপিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ক্যাপ্টেন মো. রফিকুল ইসলাম, ওমেরা পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তানজিম চৌধূরী, মো. সুলতান হোসেন খানসহ কাস্টমস বন্দর ব্যবহারকারী, শিপিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের নেতা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

অনুষ্ঠানে খুলনা সিটি মেয়র বলেন, ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দায়িত্ব নেওয়ার পর মোংলা বন্দর উন্নয়নে সরকার অগ্রাধিকার ও আধুনিকায়নে কাজ শুরু করে।

ফলে ক্রমান্বয়ে মৃতপ্রায় মোংলা বন্দর গতিশীল হতে থাকে, যার কারণে প্রতি বছর বিদেশি জাহাজ, কার্গোহ্যান্ডলিং গাড়ি আমদানিতে রেকর্ড সৃষ্টি হচ্ছে। মোংলা বিশ্বমানের নিরাপদ, আধুনিক ও স্মার্ট সমুদ্রবন্দর হতে চলেছে।

সভাপতির বক্তব্যে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান বলেন, মোংলা বন্দরে চলমান ড্রেজিংয়ের ফলে ৬০ হাজার ৫০০ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে বন্দরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো লাইবেরিয়ান পতাকাবাহী জাহাজ এমভি মানা সরাসরি মোংলা বন্দরে আগমন করে। এছাড়াও প্রথম বারের মতো বন্দর জেটিতে ৮.৫ মিটার ড্রাফটের জাহাজ ভিড়েছে। ২০২২-২৩ অর্থবছরে বন্দরে ৮২৭টি বাণিজ্যিক জাহাজ আগমন করে ও ৯৯.০৫ লাখ মেট্রিক টন কার্গো, ২৬৫৮৩ টিইউজ কন্টেইনার হ্যান্ডলিং, ১৩ হাজার ৫৭৬ টি গাড়ি আমদানি হয়েছে। আগামী দিনে মোংলা বন্দর আরও কর্মচঞ্চল ও স্মার্ট বন্দর হিসেবে বিশ্বের বুকে রূপলাভ করবে।

news24bd.tv তৌহিদ

এই রকম আরও টপিক