ইসরায়েলি সেনাদের ওপর হিজবুল্লাহর হামলা

সংগৃহীত ছবি

ইসরায়েলি সেনাদের ওপর হিজবুল্লাহর হামলা

অনলাইন ডেস্ক

লেবানন-ইসরায়েল সীমান্তবর্তী অঞ্চলে ইসরায়েলি সেনাদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করেছে লেবাননভিত্তিক শক্তিশালী সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে যুদ্ধবিরতি শেষ হওয়ার পর আবারও পূর্ণমাত্রার যুদ্ধ শুরু হয়। আর এদিনই ইসরায়েলি সেনাদের লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে হিজবুল্লাহ।

সশস্ত্র গোষ্ঠীটি জানিয়েছে, ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর একটি সামরিক অবকাঠামোর কাছে ‘উপযুক্ত অস্ত্র’ ব্যবহার করে সেনাদের লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়েছে।

যুদ্ধবিরতি শেষ হওয়ার পর ইসরায়েলের সেনাদের লক্ষ্য করে এটিই হিজবুল্লাহর প্রথম হামলা। তবে নতুন হামলার ব্যাপারে তাৎক্ষণিক কোনো তথ্য জানায়নি দখলদার ইসরায়েলি সেনাবাহিনী।

পরবর্তীতে মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্সে এক পোস্টে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী জানায়, রোস হানকারা, মার্গালিওট এবং কিরাত সমোনায় সেনা ছাউনি লক্ষ্য করে হিজবুল্লাহ হামলা চালিয়েছে। তবে সব হামলাই প্রতিহত করা হয়েছে বলে দাবি করেছে তারা।

এক্সে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী আরও জানিয়েছে, হিজবুল্লাহর হামলার পর লেবাননে তাদের লঞ্চার লক্ষ্য করে একাধিক হামলা চালানো হয়েছে।

লেবাননে শুক্রবার ইসরায়েলি সেনারা হামলা চালিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির টিভি চ্যানেল আল-মানার। তারা বলেছে, ইসরায়েলিদের হামলায় হুলা শহরে এক নারী ও তার ছেলে নিহত হয়েছেন।

গত ২৪ নভেম্বর হামাস ও ইসরায়েল প্রথমবারের মতো যুদ্ধবিরতিতে রাজি হয়। যা এক সপ্তাহ স্থায়ী ছিল। যুদ্ধবিরতি চলাকালীন লেবানন-ইসরায়েল সীমান্তও শান্ত ছিল।

সূত্র: আলজাজিরা
news24bd.tv/aa