প্রার্থীদের বিষয়ে স্বাধীনভাবে ব্যবস্থা নেবে ইসি: কাদের

ফাইল ছবি

প্রার্থীদের বিষয়ে স্বাধীনভাবে ব্যবস্থা নেবে ইসি: কাদের

জয়দেব দাশ  

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থীদেরকে বহিষ্কার করা হবে- আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এমন কোন ঘোষণা দেয়া হয়নি। আজ রোববার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক মিডিয়া ব্রিফিং তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, কোনো প্রার্থীকে হুমকি- ধামকি দেয়া হলে নির্বাচন কমিশন সেটাকে আমলে নিয়ে যে ব্যবস্থা নেবে তাকে সাধুবাদ জানায় তাঁর দল।

আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন কমিশন যে কোন প্রার্থীর বিষয়ে তাদের আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করলে ক্ষমতাসীনরা তাকে স্বাগত জানাবে।

দলীয় বা স্বতন্ত্র কোন প্রার্থীর পক্ষে আওয়ামী লীগের কোনো পক্ষপাত নেই। নির্বাচন কমিশন গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করে যে ব্যবস্থা নেবে তাতে আওয়ামী লীগের কোন হস্তক্ষেপ থাকবে না বলেও স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন ওবায়দুল কাদের।

দুর্নীতি, অর্থপাচার, সন্ত্রাস, ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে নির্বাচনের মাঠে আওয়ামী লীগের ফাইনাল খেলা হবে বলেও দাবি করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। অপরাজনীতি এবং রাজনীতির নেতিবাচক দিকগুলোর বিরুদ্ধেই ভোটের মাঠে শাসক দল লড়বে বলেও জানান তিনি।

এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় পার্টির নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে প্রকৃতপক্ষে হয়ে ওঠার এখনই মোক্ষম সময়। তাদের পুরনো মিত্র মহাজোটের শরিক আওয়ামী লীগের কাছে সিট ভাগাভাগির বিষয়ে আগ্রহ দেখালে সে বিষয়ে আলোচনার সুযোগ রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক।

বিএনপির অনেক নেতা নেতিবাচক রাজনীতি পরিহার করে সুস্থ ধারার রাজনীতিতে ফিরেছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আগামী দিনে আরও অনেক নেতাই বিএনপি ছেড়ে সুস্থ ধারার রাজনীতিতে ভিড়বে।

বিএনপি নির্বাচনে না আসলে নির্বাচন অশুদ্ধ হবে অথবা একথা হবে কেন এমন প্রশ্ন রেখে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচন কমিশনের নিবন্ধিত ৪৪টি দলের মধ্যে ২৮টি দল নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে।

উল্লেখযোগ্য সংখ্যক স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সবাই আওয়ামী লীগের প্রার্থী নয় দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির আন্দোলনে অনেকে বিভ্রান্ত হয়ে এখন যারা সুস্থ ধারার রাজনীতিতে ফিরছেন। বিএনপি তাদের ভুল রাজনীতির কারণে কর্মী হারাচ্ছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন ভাড়াটিয়া টোকাই দিয়ে তারা ঝটিকা মিছিল করছে এবং সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

সৎ সাহস থাকলে তারেক রহমানকে রাজপথে এসে রাজনৈতিকভাবে প্রতিপক্ষকে মোকাবেলা করার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ কিন্তু কখনোই শত্রু নয়। কখনো আওয়ামী লীগ বেগম জিয়া বা জিয়াউর রহমানকে হত্যা করতে যায়নি । আন্দোলনের নামে নির্বাচন প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়ে বিএনপির মধ্যে সরকারি ১৭টি এবং বেসরকারি ২৭৫টি বাসে আগুন দিয়েছে।  

লন্ডনে বসে সন্ত্রাসী কার্যক্রমের নির্দেশ দিয়ে ভুলের রাজনীতি চর্চা করছে বিএনপি এমন দাবি করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার এককচেষ্টায় দেশে নির্বাচন ব্যবস্থার সংস্কার হয়েছে।

স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের যেকোনো ব্যবস্থাকেই ক্ষমতাসীনরা সাধুবাদ জানাচ্ছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ওসি এবং ইউএনওদের বদলির পর তারা জেলা প্রশাসকদেরও রদবদল করেছেন। এতে কোথাও সরকারের পক্ষ থেকে বাধা দেয়া হয়নি।

news24bd.tv/TR