নিজে না গিয়ে ভাগনেকে পাঠাল, ফের আদালতে তলব হুইপ সামশুলকে

সংগৃহীত ছবি

নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘন

নিজে না গিয়ে ভাগনেকে পাঠাল, ফের আদালতে তলব হুইপ সামশুলকে

অনলাইন ডেস্ক

নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করে জাতীয় পতাকাবাহী গাড়ি ও পুলিশ প্রটোকল নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ায় বিতর্কিত সংসদ সদস্য জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরীকে স্বশরীরে আদালতে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছিল পটিয়া চৌকির সিনিয়র সহকারী জজ ও নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান শেখ মো. মহিবুল্লাহ। কিন্তু তার পক্ষ হয়ে আইনজীবী ও ভাগনে লোকমান খান রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে যুগ্ম-জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পটিয়া চৌকির চন্দনাইশ কোর্টের সিনিয়র জজ ও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পটিয়া-১২ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান শেখ মো. মহিবুল্লাহর আদালতে হাজির হয়ে সময়ের আবেদন জমা দিয়েছেন।

এদিকে, শুনানি শেষে আদালত আগামী ৫ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দুপুর ২টার মধ্যে সামশুল হককে স্বশরীরে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

সামশুল হকের আইনজীবী সাদ্দাম হোসেন বলেন,সামশুল হক চৌধুরী দফতরিক কাজে ঢাকায় অবস্থান করার কারণে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে আদালতের শোকজের জবাব দিতে আজ রবিবার উপস্থিত থাকতে পারেননি।

আমরা আজকে আবারও সময়ের আবেদন করেছি। আদালত আমাদের আবেদন মঞ্জুর করে আগামী ৫ ডিসেম্বর ২০২৩ তারিখ দুপুর ২টার মধ্যে স্বশরীরে হাজির হওয়ার আদেশ দিয়েছেন।

সামশুল হক চৌধুরী এমপির ভাগনে লোকমান খান বলেন, জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপি বিশেষ কাজে ঢাকায় থাকার কারণে আমরা তার পক্ষে আজকে আদালতে শোকজের জবাব দিতে আসছি। বিজ্ঞ আদালতে আমরা সময়ের আবেদন করেছি।

আদালত আমাদের সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে আগামী ৫ ডিসেম্বর দুপুর ২টার মধ্যে সামশুল হক চৌধুরীকে স্বশরীরে হাজির হতে আদেশ দিয়েছেন।

সামশুল হক চৌধুরী এমপি স্বাক্ষরিত সময়ের আবেদনে বলা হয়েছে, আপনার প্রেরিত গত ১ ডিসেম্বর কারণ দর্শানো নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে জানানো যাচ্ছে যে, আমি নিম্ন স্বাক্ষরকারী বর্তমানে মহান জাতীয় সংসদের হুইপ হিসেবে কর্মরত আছি। আমি বর্তমানে গুরুত্বপূর্ণ কাজে গত ২ দিন যাবৎ ঢাকায় অবস্থান করায় অদ্য ৩/১২/২০২৩ইং তারিখে ব্যাক্তিগতভাবে অনুসন্ধান কমিটির সামনে উপস্থিত হতে পারছি না মর্মে আগামী ৫/১২/২০২৩ইং তারিখ, দুপুর ২টায় ব্যক্তিগতভাবে আপনার সম্মুখে উপস্থিত হবার জন্য সময়ের অনুরোধ জানাচ্ছি।

এর আগে গত ২৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন ফরম জমা দেয়ার সময় নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করায়, ১ ডিসেম্বর কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন চট্টগ্রামের পটিয়া চৌকির সিনিয়র সহকারী জজ ও নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান শেখ মো. মহিবুল্লাহ।

তার জারি করা নোটিশে সামশুল হক চৌধুরীকে অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান কার্যালয়ে রবিবার স্বশরীরে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।

নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘন বিষয়ে ব্যাখ্যা প্রদান প্রসঙ্গে জারি করা নোটিশে আরও বলা হয়েছিল, সামশুল হক চৌধুরী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১২ আসনের একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী। আপনার বিরুদ্ধে অত্র কমিটির নিকট নির্বাচন কমিশন হতে প্রাপ্ত তথ্য এবং ৩০ নভেম্বের ২০২৩ এর বেলা ১৭.৪৯ ঘটিকায় প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন এর অনলাইন সংস্করণ এবং একই তারিখে বেলা ১৬.৪৯ ঘটিকায় প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক প্রথম আলো এর অনলাইন সংস্করণের খবরের সূত্র মতে, এই মর্মে অভিযোগ আনীত হয় যে, আপনি গত ৩০ নভেম্বর ২০২৩ ইং দুপুর ২ ঘটিকায় রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়-চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আসেন, এসময় আপনাকে বহনকারী গাড়িতে জাতীয় পতাকা ছিল এবং সামনে ছিল চট্টগ্রাম নগর পুলিশের একটি গাড়ি যা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা, ২০০৮ এর বিধি- ১৪ (১) ও ১৪ (২) এর সুস্পষ্ট লাগান মর্মে আপাতত প্রতিয়মান হয়।

এঅবস্থায় আগামী ৩/১১/২০২৩ ইং তারিখের এর মধ্যে এই কমিটির নিকট উপরোল্লেখিত বিষয়ে ব্যখ্যা দাখিলের জন্য সিনিয়র সহকারী জজ আদালত, চন্দনাইশ কোর্ট, পটিয়া চৌকী, পটিয়া, চট্টগ্রামে অবিস্থিত নিম্ম স্বাক্ষরকারীর কার্যালয়ে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে লিখিত ব্যখ্যা প্রদানের জন্য গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, ১৯৭২ এর ১১-ক (৫)(ক) অনুচ্ছেদের ক্ষমতাবলে আপনাকে নির্দেশ প্রদান করা হলো।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম-১২ (পটিয়া) আসনের বিতর্কিত সংসদ সদস্য হুইপ সামশুল হক চৌধুরী। দ্বাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি। দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী। তার বিপরীতে মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে এবার তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এ নিয়ে পটিয়ায় আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠে। তবে তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের রোষানলের স্বীকার হবেন এমন সম্ভাবনার কারণে সামশুল চৌধুরী নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর পটিয়ায় আর আসতে পারেননি।

news24bd.tv/aa

পাঠকপ্রিয়