রবিবার, ৭ জুন, ২০২০ | আপডেট ০৪ মিনিট আগে

৫ উইকেট হারিয়ে চাপে জিম্বাবুয়ে

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

৫ উইকেট হারিয়ে চাপে জিম্বাবুয়ে

ফাইল ছবি

যত কম রানে অল আউট করা যায় সেই লক্ষ্যেই খেলছে বাংলাদেশ। সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে টাইগাররা। ব্যাটসম্যানদের পর বোলাররাও নিজেদের কাজটাও ঠিকঠাকভাবে করতে চেষ্টা করছেন। এরই অংশ হিসেবে ফিরে গেলেন ইনফর্ম শন উইলিয়ামস। দুর্দান্ত স্পিনে তাকে বোল্ড করে ফেরালেন তাইজুল ইসলাম এবং শূন্য রান নিয়ে তার নতুন সঙ্গী সিকান্দার রাজা।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৫ উইকেটে ১৩১ রান করেছে জিম্বাবুয়ে। ৪০ রান নিয়ে ক্রিজে আছেন ব্রেন্ডন টেইলর। 

আগের দিনের ১ উইকেটে ২৫ রান নিয়ে তৃতীয় দিন খেলতে নামে জিম্বাবুয়ে। ব্রায়ান চারি ১০ এবং নাইটওয়াচম্যান ডোনাল্ড তিরিপানো শূন্য রান নিয়ে খেলা শুরু করেন। রান তোলাই ছিল তাদের লক্ষ্য। অন্যদিকে প্রতিপক্ষকে দ্রুত গুঁড়িয়ে দেয়ার প্রত্যয় নিয়ে ফিল্ডিংয়ে নামে বাংলাদেশ। শুরু থেকে চেষ্টা করছিলেন বোলাররা। তবে সাফল্য আসছিল না। অবশেষে তাদের প্রচেষ্টা আলোর মুখ দেখে। তাইজুলের স্পিনে ঘায়েল হয়ে মেহেদী হাসান মিরাজকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ডোনাল্ড তিরিপানো।

তিরিপানো দ্রুত ফিরলেও থেকে যান ব্রায়ান চারি। শুরুটা ধীরস্থির করলেও সময় গড়ানোর সঙ্গে হাত খোলেলেন তিনি। এক পর্যায়ে রীতিমতো বাংলাদেশ বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালান। ছোটান স্ট্রোকের ফুলঝুরি। ফিফটি (৫৩) তুলে চোখ রাঙাতে থাকেন। সেই মুহূর্তে তার চোখ রাঙানি থামান মিরাজ। মুমিনুল হকের তালুবন্দি করে জিম্বাবুয়ে ওপেনারকে ফেরান এ অফস্পিনার। অবশ্য মিরাজের আবেদনে প্রথমে সাড়া দেননি আম্পায়ার। পরে রিভিউ নেয় বাংলাদেশ। তাতে তার আবেদন পজিটিভ প্রমাণিত হলে সিদ্ধান্ত পাল্টাতে বাধ্য হন আম্পায়ার।

এর আগে দ্বিতীয় দিন শেষ বিকালে বাংলাদেশের দেয়া ৫২২ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় সফরকারীরা। দলীয় ২০ তাইজুল ইসলামের বলে মেহেদী হাসান মিরাজকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা।

প্রথম ইনিংসে মুশফিকুর রহিমের রেকর্ড ডাবল সেঞ্চুরি (২১৯), মুমিনুল হকের সেঞ্চুরি (১৬১) এবং মেহেদী হাসান মিরাজের ফিফটিতে (৬৮) রানের পাহাড় গড়ে বাংলাদেশ। ৭ উইকেটে ৫২২ রানে ইনিংস ঘোষণা করেন স্বাগতিক অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। জিম্বাবুয়ের হয়ে ৫ উইকেট নেন কাইল জার্ভিস।

 

NEWS24▐ কামরুল

মন্তব্য