মিয়ানমারে বিদ্রোহীদের দখলকৃত অঞ্চলে বেসামরিক সরকার গঠিত

সংগৃহীত ছবি

মিয়ানমারে বিদ্রোহীদের দখলকৃত অঞ্চলে বেসামরিক সরকার গঠিত

অনলাইন ডেস্ক

মিয়ানমারে চলমান গৃহযুদ্ধে বিদ্রোহী সংগঠন পিপলস ডিফেন্স ফোর্স রোববার (৩ ডিসেম্বর) দেশটির সাগাইং অঞ্চলের কাউলিন শহরে পূর্ণ বেসামরিক সরকার গঠন করেছে বলে জানিয়েছে ন্যাশনাল ইউনিটি গভর্নমেন্ট। জান্তা সরকারের সাথে চারদিনব্যাপী লড়াইয়ের পর গত ৪ নভেম্বর বিদ্রোহীদের সংগঠন পিপলস ডিফেন্স ফোর্স অঞ্চলটি দখল করে নেয় বলে জানায় সংবাদ সংস্থা ইরাবতী।  

ন্যাশনাল ইউনিটি গভর্নমেন্টের তথ্যমতে, কাউলিন জেলা বর্তমানে ১,১৮০ জন সরকারি কর্মকর্তা দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। তারা অঞ্চলটির ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনার জন্য ইতোমধ্যে স্থানীয় মানুষদেরকে সহযোগীতা করতে শুরু করেছে।

কাউলিন সরকার পিপলস সিকিউরিটি ফোর্স এবং পিপলস পুলিশ ফোর্স নামে দুইটি বাহিনী সৃষ্টি করেছে যারা অত্র অঞ্চলের অধিবাসীদেরকে জান্তা সরকারের হামলা থেকে রক্ষার কাজে নিয়োজিত থাকবে। বর্তমানে কাউলিন সরকার একটি বেসামরিক বিচারব্যবস্থা গড়ে তোলার কাজে নিয়োজিত আছে।

এলাকাটি থেকে জান্তা কর্তৃক গ্রেপ্তার হওয়া ৯৮ জন ব্যক্তির মধ্যে ৬৩ জনকে ইতোমধ্যে ছেড়ে দেয়া হয়েছে এবং বাকিদেরও মুক্তির প্রক্রিয়া চলছে। এছাড়াও, ৬৫ জন নার্স ও ডাক্তার দ্বারা গঠিত শহরটির স্বাস্থ্য বিভাগ নাগরিকদেরকে জরুরি স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে যাচ্ছে।

কাউলিন সরকার জানায়, শহরটিতে মোট ১২,৬১০ জন বাস্তুচ্যুত মানুষ বাস করছে যাদেরকে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও মানবিক সেবা মন্ত্রণালয় থেকে ত্রান সরবরাহ করা হচ্ছে। পাশাপাশি, শিক্ষাব্যবস্থাকে অটুট রাখতে কাউলিন সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় একইসাথে অনলাইন এবং অন গ্রাউন্ড শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পরিকল্পনা করছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, কাউলিনের রাস্তায় মানুষজন মুক্তভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছে। দোকানপাট খুলতে শুরু করেছে, যারা শহরটি ছেড়ে চলে গিয়েছিলো তারাও ফিরে আসছে। সব মিলিয়ে শহরটিতে এখন বিরাজ করছে এক উৎসবমুখর পরিবেশ।

news24bd.tv/ab