বৃষ্টি কতদিন থাকবে?

বৃষ্টি কতদিন থাকবে?

অনলাইন ডেস্ক

লঘুচাপের প্রভাবে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে কখনও ঝিরিঝিরি আবার কখনও গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। আবার কোথাও আকাশ মেঘাচ্ছন্ন। এতে দুর্ভোগ বেড়েছে জনজীবনে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বৃষ্টির এ প্রবণতা শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

সেই সঙ্গে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এখন অগ্রহায়ণের মধ্যভাগ। প্রকৃতিতে শীতের আমেজ থাকার কথা থাকলেও হয়েছে উল্টো।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) রাত থেকে রাজধানীতে শুরু হয় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। বৃহস্পতিবার দিনভর কখনও ঝিরিঝিরি আবার কখনও গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি ঝড়েছে। শুধু ঢাকা নয়, দেশের বিভিন্ন স্থানেই বৃষ্টিতে দুর্ভোগ বেড়েছে জনজীবনে।

শীতের শুরুতে হঠাৎ বৃষ্টিতে সবচেয়ে বেশি বিপাকে উত্তরাঞ্চলের মানুষ। ব্যাহত হচ্ছে ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ ৯৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে। এ সময় ঢাকায় বৃষ্টিপাত হয়েছে ৪৪ মিলিমিটার।

আবহাওয়া অফিস বলছে, ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের প্রভাবে সৃষ্ট লঘুচাপটি ধীরে ধীরে কেটে যাচ্ছে। তবে শুক্রবার পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে। আর মেঘ কেটে গেলেই শীতের প্রকোপ বাড়বে।

আবহাওয়া অফিসের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, উত্তর অন্ধ্র প্রদেশ ও তার কাছাকাছি উড়িষ্যা এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি বর্তমানে গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

এ অবস্থায় শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে। এ সময় সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি বাড়তে পারে।

তবে শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে আগামী রোববার (১০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা পর্যন্ত অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। এ সময় মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকা এবং উত্তরাঞ্চলের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

এর মধ্যে শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে। আর শনিবার (৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্য ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। বর্ধিত ৫ দিনের আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়েছে, রাতের তাপমাত্রা আরও কমতে পারে।

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় বৃহস্পতিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৭.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন দেশের সর্বোচ্চ ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল কক্সবাজারে। আর ঢাকায় সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১৯ ও ২১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আরও পড়ুন: এই বৃষ্টি কি শীত নামাবে?

news24bd.tv/তৌহিদ

পাঠকপ্রিয়