জঙ্গলে পড়েছিল অটোরিকশা চালকের রক্তাক্ত মরদেহ

সংগৃহীত ছবি

জঙ্গলে পড়েছিল অটোরিকশা চালকের রক্তাক্ত মরদেহ

অনলাইন ডেস্ক

গাজীপুরের শ্রীপুরে রাস্তার পাশের জঙ্গলের ভেতর থেকে হৃদয় নামে এক অটোরিকশা চালকের রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (১০ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত পৌঁনে ১টায় উপজেলার গোসিঙ্গা ইউনিয়নের কর্নপুর সিটপাড়া সংযোগ সড়কের পাশের জঙ্গল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।  

লাশের ঠোঁট ও কপালে ধারল অস্ত্রের একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার পাশেই পড়েছিল ধারালো ছুরি।

 

নিহতের নাম হৃদয় (২৫)। তিনি ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলার হাতিখলা গ্রামের মৃত সুজন মিয়ার ছেলে। তিনি শ্রীপুর পৌরসভার বাগমারা গ্রামের (কলেজেপাড়া) এলাকার জনৈক বিল্লাল পুলিশের বাড়িতে ভাড়া থেকে অটোরিকশা চালাতেন।

গোসিঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. সুমন মিয়া বলেন, রাতে রাস্তার পাশে জঙ্গলে একটি অটোরিকশা উল্টে পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা।

এগিয়ে গিয়ে পাশে একটি রক্তাক্ত মরদেহ দেখতে পান তারা। এরপর তারা পুলিশে খবর দেন। আমি রাতেই ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। ধারণা করা হচ্ছে, অটোরিকশা ছিনিয়ে নিতে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে ধারালো ছুরি দিয়ে তাকে খুন করা হয়েছে।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম নাসিম মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত ব্যক্তি একজন অটোরিকশা চালক। রোববার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন তিনি। এরপর আনুমানিক রাত ৮টা থেকে ১০টার মধ্যে দুষ্কৃতিকারীরা হৃদয়কে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাতে খুন করে। স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে রাত পৌঁনে ১টার দিকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহের পাশ থেকে একটি রক্তমাখা ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

news24bd.tv/আইএএম

পাঠকপ্রিয়