হামাসের হামলায় ব্যাটালিয়ন কমান্ডারসহ ১০ ইসরায়েলি সেনা নিহত

হামাসের হামলায় ব্যাটালিয়ন কমান্ডারসহ ১০ ইসরায়েলি সেনা নিহত

অনলাইন ডেস্ক

গাজায় ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাসের যোদ্ধাদের সঙ্গে লড়াইয়ে একদিনেই এলিট গোলানি ব্রিগেডের ১ কমান্ডারসহ ১০ সেনা হারিয়েছে ইসরায়েল। এ নিয়ে গাজায় স্থল অভিযানে ১১৫ ইসরায়েলি সেনা নিহত হলেন। আহত হয়েছেন প্রায় ৬০০। সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে উঠে আসে এ তথ্য।

গতকাল বুধবার ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী জানায়, আগের দিন উত্তর গাজায় এক ঘটনায় ৯ ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছেন। এছাড়া সেখানে পৃথক ঘটনায় আরও এক সেনা নিহত হয়েছেন।

তবে কোন পরিস্থিতিতে ব্যাটালিয়ন কমান্ডার নিহত হয়েছেন, সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলেনি ইসরায়েলের সেনাবাহিনী। নিহত দুই সেনার পরিচয় প্রকাশ করেছে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী।

তারা হলেন কর্নেল ইৎঝাক বেন বাসাত (৪৪) ও সার্জেন্ট ইরান আলোনি (১৯)।

এ ছাড়া নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে গোলানি ব্রিগেডের ১৩তম ব্যাটালিয়নের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল তোমের গ্রিনবার্গও রয়েছেন বলে জানানো হয়।

আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, নিহত সেনাদের মধ্যে দুজন মেজর এবং এক ক্যাপ্টেনও রয়েছেন। ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর তথ্য অনুযায়ী, নিহত দুই মেজর ৬৬৯ স্পেশাল রেসকিউ ট্যাকটিক্যাল ইউনিটের সদস্য ছিলেন।

এর আগে হামাসের সামরিক শাখা কাসাম ব্রিগেডস উত্তর গাজায় এক লড়াইয়ে ১১ ইসরায়েলি সেনাকে হত্যার দাবি করে। এক বিবৃতিতে কাসাম ব্রিগেডস বলেছে, হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত একটি ট্যাংক থেকে এক সেনাকে উদ্ধারের সময় এই সেনাদের ওপর তাঁদের যোদ্ধারা হামলা চালান।

সেনা হতাহতের এ ঘটনাকে ‘দ্বিতীয় স্বাধীনতাযুদ্ধের’ সঙ্গে তুলনা করেছেন ইসরায়েলের যুদ্ধকালীন মন্ত্রিসভার সদস্য সাবেক সেনাপ্রধান বেনি গানৎজ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে (সাবেক টুইটার) দেওয়া পোস্টে তিনি বলেন, ইসরায়েলের দ্বিতীয় স্বাধীনতাযুদ্ধ আমাদের কাছ থেকে ভারী, বেদনাদায়ক এবং কঠিন মূল্য নিচ্ছে।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় হালনাগাদ তথ্যে জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ইসরায়েলি হামলায় গাজায় ১৯৬ জন নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় ১৮ হাজার ৬০৮ জন নিহত হয়েছেন। যাদের অধিকাংশই নারী ও শিশু।

news24bd.tv/DHL

পাঠকপ্রিয়