রাজার সমালোচনা করায় এমপির কারাদণ্ড

রুকচানোক শ্রীনর্ক। ছবি: সংগৃহীত

রাজার সমালোচনা করায় এমপির কারাদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক

রাজার সমালোচনা করার অভিযোগে সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন থাইল্যান্ডের প্রগতিশীল মুভ ফরোয়ার্ড পার্টির (এমএফপি) সংসদ সদস্য রুকচানোক শ্রীনর্ক (২৯)। বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) তার ছয় বছরের কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন থাই আদালত। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে রাজকীয় অবমাননাকর দুটি বার্তা পুনরায় পোস্ট করার জন্য ‘লেস ম্যাজেস্টে ও কম্পিউটার অপরাধ’ আইন লঙ্ঘনের জন্য শ্রীনর্ককে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

একই সঙ্গে শ্রীনর্ককে ৫ লাখ বাহত (১৪ হাজার ইউএস ডলার) নিরাপত্তাসহ জামিন দেওয়ার ঘোষণাও দেন আদালত।

দুটি পোস্টের একটিতে শ্রীনর্ক থাইল্যান্ডের মহামারী পরিস্থিতি সামাল দেওয়া নিয়ে সমালোচনা করেন। আর দ্বিতীয়টিতে, রাজতন্ত্রের সমালোচনামূলক একটি টুইটের পুনঃপোস্ট করেন।

এ বিষয়ে এমএফপি নেতা চৈথাওয়ান তুলাথন বলেন, ‘রাকচানোক শ্রীনর্ককে ১১২ (লেস ম্যাজেস্টে) অভিযোগে তিন বছরের ও কম্পিউটার অপরাধ আইনের অভিযোগে তিন বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তবে শ্রীনর্ক নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করেছেন এবং সাজার বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন। তিনি আবারও রাজতন্ত্রের সমালোচনা করবেন না- এই শর্তে ১৪ হাজার ডলারে শ্রীনর্কের জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে। তার জামিন বাতিল করা হলে এবং তিনি জেলে গেলে এমপি পদ হারাতে পারেন।

চলতি বছরের মে মাসের নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি আসন জিতেছিল এমএফপি। কিন্তু দলটি থাইল্যান্ডের কঠোর রাজকীয় মানহানি আইন সংস্কারের পক্ষে থাকায় সরকার গঠন করতে পারেনি।

news24bd.tv/DHL