৩ পয়েন্ট পেয়েও সন্তুষ্ট নয় বার্সা কোচ

সংগৃহীত ছবি

৩ পয়েন্ট পেয়েও সন্তুষ্ট নয় বার্সা কোচ

অনলাইন ডেস্ক

পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে থাকা আলমেরিয়ার বিপক্ষে ঘাম ঝরিয়ে জয় পেয়েছে বার্সেলোনা। টানা তিন ম্যাচ জয়শূন্য থাকার পর পুচকে আলমেরিয়ার বিপক্ষেও পয়েন্ট হারানোর পথেই ছিল বার্সা। তবে ম্যাচের শেষদিকে সের্হি রবের্তো ত্রাণকর্তা হিসেবে আবির্ভূত হয়, ৮৩ মিনিটে তার দ্বিতীয় গোলে ৩-২ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কাতালান ক্লাবটি।

রবের্তোর সৌজন্যে ৩ পয়েন্ট এসেছে বটে, তবে এমন জয়ে সন্তুষ্ট হতে পারেননি জাভি।

প্রথমার্ধে খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স মেনে নিতে পারেননি বার্সা কোচ। ম্যাচের পর জাভি বলেন, ‘যতটা ধারণা করেছিলাম, তার চেয়েও বেশি ভুগেছি। আমরা ৩০টি শট নিয়েছি কিন্তু ২টি গোল উপহার দিয়েছি। প্রথমার্ধের খেলা অগ্রহণযোগ্য।
কোচ হিসেবে এটা মেনে নেওয়া যায় না—যেটা আমি বিরতির সময়ই (খেলোয়াড়দের) বলেছি। দ্বিতীয়ার্ধের খেলা তুলনামূলক ভালো ছিল। কিন্তু আমরা প্রচুর সুযোগ নষ্ট করেছি এবং সেটা প্রায় এক মাস ধরেই হয়ে আসছে। এই দলে প্রেরণার অভাব। গত মৌসুমের প্রেরণাটা অনুপস্থিত। আগ্রাসন এবং মনোযোগ নেই। ’

গতকাল মৌসুমের প্রথম জয়ের খোঁজে নামা আলমেরিয়া দুইবার পিছিয়ে পড়েও সমতায় ফিরেছিল। ৩৩ মিনিটে রাফিনিয়ার গোলে জাভির দল এগিয়ে যাওয়ার পর ৪১ মিনিটে কারিল্লো বাপতিস্তাওয়ের গোলে সমতায় ফেরে আলমেরিয়া। প্রথমার্ধে দুই দলই গোলের বেশ কিছু সুযোগ নষ্ট করেছে। রবের্তো যেমন বক্সে আনমার্কড থাকা অবস্থায় বল পেয়েও গোল করতে পারেননি। গোলকিপার লুইস ম্যাক্সিমিলিয়ানোর বীরত্বে সে যাত্রায় বেঁচে যায় আলমেরিয়া। রবার্ট লেভানডফস্কিকেও একা রুখে দেন আলমেরিয়া গোলকিপার।

বিরতির পর রবের্তোই ত্রাণকর্তা হয়ে ওঠেন বার্সার। ৬০ মিনিটে তার গোলে এগিয়ে যায় বার্সা। কিন্তু ১১ মিনিট পরই এদগার গঞ্জালেস সমতায় ফেরান আলমেরিয়াকে। শেষ পর্যন্ত ৮৩ মিনিটে রবের্তোই গোল করে এগিয়ে দেন বার্সাকে এবং ওই গোলই গড়ে দেয় ম্যাচের ব্যবধান।

গত মৌসুমে লিগ জয়ের পর ২০ গোল হজম করেছিল বার্সা। এবার ১৮ ম্যাচেই ২১ গোল হজম করল ক্লাবটি। বিরতিতে মাঠ ছাড়ার সময় ঘরের মাঠে দর্শকদের দুয়োর শিকার হন বার্সার খেলোয়াড়েরা। এ নিয়ে জাভি বলেছেন, ‘আমি বিষয়টি বুঝতে পারছি। নিজে দুয়ো দেওয়া পছন্দ করি না। জীবনে কখনো সেটা করিনি। কিন্তু এটা মেনে নিচ্ছি। যেটা বলেছি, এমন পারফরম্যান্স অগ্রহণযোগ্য। আপনি ভালো কিংবা খারাপ খেলতে পারেন, হারতে পারেন, জিততে পারেন—সেটা বিষয় না। কিন্তু ক্লাব এবং ব্যাজের দিকে তাকিয়ে আপনাকে পুরোটাই নিংড়ে দিতে হবে। ’

news24bd.tv/SHS

পাঠকপ্রিয়