বাগেরহাটে ভোটের মাঠে নেই জাপার কোনো দাপুটে প্রার্থী

বাগেরহাট- ১ আসনে জাপা’র প্রার্থী মো. কামরুজ্জামান, বাগেরহাট-২ আসনে হাজরা শহীদুল ইসলাম বাবলু ও বাগেরহাট-৩ আসনের প্রার্থী মো. মনিরুজ্জামান মনির (বাঁ থেকে)।

বাগেরহাটে ভোটের মাঠে নেই জাপার কোনো দাপুটে প্রার্থী

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের ৪টি সংসদীয় আসনে ভোটের মাঠে দাপট দেখাতে পারছে না জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রার্থীরা। সাংগঠনিক দুর্বলতা ও আসন ভিত্তিক পরিচিতি বা সর্বমহলের ভোটারদের কাছে জনপ্রিয় না হওয়ায় অতীতের মতো জাপার তিন প্রার্থী জামানত হারানোর ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন।

তিন প্রার্থীদের মধ্যে বাগেরহাট- ১ আসনে জাপা’র প্রার্থী মোল্লাহাট উপজেলা জাতীয় পার্টি সভাপতি মো. কামরুজ্জামান, ৩ আসনের প্রার্থী মোংলা উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. মনিরুজ্জামান মনির ও ৪ আসনের প্রার্থী মোড়েলগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির উপদেষ্টা সাজন কুমার মিস্ত্রী মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেই।

এক্ষেত্রে আসনভিত্তিক পরিচিতি থাকায় কিছুটা সুবিধাজনক অবস্থায় রয়েছেন বাগেরহাট-২ আসনের প্রার্থী জেলা জাতীয় পার্টি সাধারণ সম্পাদক হাজরা শহীদুল ইসলাম বাবলু।

এই আসনে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে না পারলেও ভোটারদের মতে জাপা প্রার্থী হাজরা শহীদুল অবশ্যই দ্বিতীয় অবস্থানে থাকবেন।

বাগেরহাট- ১ আসনে গত পাঁচবারের এমপি আওয়ামী লীগের প্রার্থী বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র শেখ হেলাল উদ্দিনের সাথে জাপা’র প্রার্থী মোল্লাহাট উপজেলা জাতীয় পার্টি সভাপতি মো. কামরুজ্জামান কোনো প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারছেন না।

এবার ভোটের মাঠে বিএনপি না থাকলেও এই আসনে নির্বাচনে অংশ নেয়া অন্য পাঁচটি দলের প্রার্থীর মধ্যে অতীতের মতো চতুর্থ বা পঞ্চম স্থানে থাকতে পারে জাপা প্রার্থী।

বাগেরহাট- ২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান এমপি শেখ তন্ময়ের সাথে শক্ত কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারছেন না জেলা জাতীয় পার্টি সাধারণ সম্পাদক হাজরা শহীদুল ইসলাম বাবলু।

তবে ভোটাররা বলছেন, নিজের পরিচিতি ও জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে অন্য চার প্রার্থীকে পিছনে ফেলে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকবেন জাপা প্রার্থী।

বাগেরহাট- ৩ আসনে ভোটের মাঠে কোনো প্রভাব ফেলতে পারছেন না জাপা প্রার্থী মোংলা উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. মনিরুজ্জামান মনির। এই আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান এমপি পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহারের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মো. ইদ্রিস আলী ইজারাদারের।

বাগেরহাট- ৪ আসনে ভোটের মাঠে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগের সাথে কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারছেন না জাপা প্রার্থী মোড়েলগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির উপদেষ্টা সাজন কুমার মিস্ত্রী। ভোটাররা বলছেন, এই আসনে সর্বমোট ৭ জন প্রার্থীর মধ্যে চতুর্থ বা পঞ্চম স্থানে থাকতে পারেন জাপা প্রার্থী সাজন।

news24bd.tv/FA

পাঠকপ্রিয়