সোনাইমুড়ীতে মোটরসাইকেল-বাসের সংঘর্ষে প্রাণ গেলো পিতা-পুত্রের

সোনাইমুড়ীতে মোটরসাইকেল-বাসের সংঘর্ষে প্রাণ গেলো পিতা-পুত্রের

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে মোটরসাইকেল ও যাত্রীবাহী জননী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাবা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে। এতে আরও ২ জন আহত হয়।

বুধবার সকালে সোনাইমুড়ির জয়াগ ইউনিয়নের চাটখিল টু সোনাইমুড়ী সড়কের জুনুদপুর বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, লিটন চন্দ্র দেবনাথ (৪৬) ও তার ছেলে প্রান্ত দেবনাথ (১০)।

লিটন উপজেলার জয়াগ ইউনিয়নের ভাটপাড়া গ্রামের সুনীল চন্দ্র দাসের ছেলে।

হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জয়াগ বাংলা বাজার থেকে কম্পিউটার ক্লাস শেষে পিতা পল্লী চিকিৎসক লিটন চন্দ্র দাস তার দুই ছেলে প্রতাপ দেবনাথ ও প্রান্ত দেবনাথকে নিয়ে সকাল ১০টার দিকে নিজের বাড়িতে মোটরসাইকেলে যাওয়ার পথে বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থলে পিতা ও তার ছোট ছেলে মারা যায়। বড় ছেলে ও এক বাস যাত্রীকে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়েছে।

প্রথমাবস্থায় আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় বজরা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক লিটন ও তার ছোট ছেলেকে মৃত ঘোষণা করেন।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এতে এখন পর্যন্ত বাবা-ছেলে সহ ২জন নিহত হয়েছে। বজরা হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ফৌজিয়া হোসেন তান্নি, ২জন নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

news24bd.tv/FA

এই রকম আরও টপিক