অযোধ্যার মন্দির উদ্বোধনে কেন অংশ নেবে না বামপন্থীরা?

রাম মন্দির প্রসঙ্গে সিপিএম নেতা সীতারাম ইয়েচুরি

অযোধ্যার মন্দির উদ্বোধনে কেন অংশ নেবে না বামপন্থীরা?

অনলাইন ডেস্ক

আগামী ২২ জানুয়ারি উদ্বোধন হতে যাচ্ছে ভারতের বহুল প্রতীক্ষিত এবং আলোচিত-সমালোচিত অযোধ্যার রাম মন্দির। ইতোমধ্যে মন্দির উদ্বোধনের আমন্ত্রণ পেয়ে গেছেন ভারতের বড় বড় নেতা এবং শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিত্ব।

কিন্তু ভারতের বামপন্থী দল সিপিএম রাম মন্দির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অংশ নেবে না। সিপিএম-এর সাধারণ সেক্রেটারি সীতারাম ইয়েচুরি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই কথা জানিয়েছেন।

এ সময় তিনি জানান, 'আমাদের দল রাম মন্দির উদ্বোধনে অংশ নেওয়ার জন্য নিমন্ত্রণপত্র পেয়েছে। কিন্তু আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই যে এই নিমন্ত্রণ আমরা প্রত্যাখ্যান করলাম। '

এ সময় ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সমালোচনা করেন সীতারাম। তিনি বলেন, 'আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে রাম মন্দির উদ্বোধন করে বিজেপি সরকার তাদের রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিল করতে চাচ্ছে।

ধর্মকে কখনো রাজনীতির সাথে জড়ানো উচিত না। ধর্মকে নিয়ে রাজনীতি করলে সেখানে ধর্ম ও রাজনীতি দুয়েরই সৌন্দর্য নষ্ট হয়। '

এদিকে বামপন্থীদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করেছে ভারতের প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেসের অনেক নেতাও। মূলত ২০২৪ সালে ভারতের লোকসভা নির্বাচনে ভোট ব্যাংক হিসাবে হিন্দুদের ধর্মীয় অনুভূতিকে ব্যবহার করা হচ্ছে বলে ভারতের রাজনীতিতে সক্রিয় বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দল অভিযোগ করে আসছে। কিন্তু বরাবরের মতো এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে দেশটির ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার জানিয়ে আসছিলো যে ভারতের জনগণ তাদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেছে।

আরও পড়ুন : ভয়ে দিন কাটাচ্ছে অযোধ্যার মুসলিমরা

এর আগে শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) অযোধ্যায় ১৫ হাজার ৭০০ রূপির বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড উদ্বোধনকালে এক জনসভায় বক্তব্য দিয়েছিলেন ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের নেতা ও টানা দুইবার দেশটিতে ক্ষমতায় থাকা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, '২২ জানুয়ারি রাম মন্দিরের উদ্বোধন দেখতে বিশ্ববাসী এখন ভারতের দিকে তাকিয়ে আছে। কারণ আমাদের সরকার জানে কিভাবে নিজেদের সমৃদ্ধ ইতিহাসকে সংরক্ষণ করতে হয়। '

যদিও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ও জনস্রোত ঠেকাতে মোদী ২২ জানুয়ারি সাধারণ মানুষদের অযোধ্যায় আসতে নিষেধ করেছিলেন।

৩০ ডিসেম্বরের ওই জনসভায় মোদী বলেন, 'আমি জানি, আপনারা সবাই অপেক্ষা করছেন ২২ জানুয়ারির। এই অপেক্ষা পুরো ১৪০ কোটি ভারতবাসীর। কিন্তু আপনাদের কাছে আমার বিনীত অনুরোধ যে আপনারা নিজেদের সুবিধামত দিনে সময় নিয়ে রাম মন্দিরে আসবেন। কিন্তু ২২ জানুয়ারি আপনারা বাসায় অবস্থান করে এই পবিত্র ও বহুল প্রতীক্ষিত মুহূর্তটি উপলক্ষে মোমবাতি ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে দীপাবলি পালন করবেন। আমরা বিগত ৪০০ বছর ধরে এই মুহূর্তের অপেক্ষা করছি। আর কিছুদিন অপেক্ষার পর আমাদের সবার স্বপ্নকে আমরা বাস্তবে দেখতে পাবো'

news24bd.tv/SC