মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ১৭ মিনিট আগে

চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার পথে দুর্ঘটনার কবলে বাংলাদেশি পরিবার

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার পথে দুর্ঘটনার কবলে বাংলাদেশি পরিবার

ভারতে চিকিৎসা করিয়ে দেশে ফেরার পথে পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁ যশোর রোডে ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ল এক বাংলাদেশি পরিবার। এতে মৃত্যু হয়েছে এক ভারতীয় নাগরিকের। আহত হয়েছেন ছয়জন, এর মধ্যে তিনজনই বাংলাদেশি।  

মঙ্গলবার সকালের দিকে উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার বনগাঁ মহুকুমার যশোর রোডের সিকদার পল্লী এলাকায় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। বাংলাদেশের ঝিনাইদহের বাসিন্দা শ্যামল বিশ্বাস, তাঁর স্ত্রী সীমা ও আড়াই বছরের কন্যা সন্তান(শশী)-কে নিয়ে কয়েক দিন আগে কলকাতায় এসেছিল চিকিৎসা করাতে। এদিন সকালেই তারা বনগাঁর হরিদাসপুর সীমান্ত দিয়ে দেশের উদ্যেশ্যে ফিরছিলেন। যাওয়ার পথেই তাঁদের গাড়ির সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাছ বহনকারী গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মাছের গাড়িটিতে থাকা এক ব্যক্তির। বনগাঁর সুটিয়ার বাসিন্দা মৃত রঞ্জিত সেসময় গাড়িটির ছাদে ছিলেন বলে জানা গেছে। দুর্ঘটনার সময় গাড়িটির ছাদ থেকে মাটিতে পড়ে তাঁর মৃত্যু হয়। আহত হয় মাছের গাড়িটির চালকসহ দুইজন এবং বাংলাদেশিদের বহনকারী গাড়িটির মধ্যে থাকা চালকসহ চারজনের।

স্থানীয় মানুষের সহায়তায় আহত ছয় ব্যক্তিকেই বনগাঁ জে আর ধর মহুকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে দুই জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়াতে কলকাতায় পাঠানো হয়েছে। 

দুর্ঘটনার জেরে যশোর রোডে বেশ কিছুক্ষণ যানযটের সৃষ্টি হয়। পরে ঘটনাস্থলে বনগাঁ থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।  

হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে সীমা বিশ্বাস জানান, ‘গত শুক্রবার মেডিকেল ভিসা নিয়েই আমরা বাংলাদেশ থেকে কলকাতায় আসি। দুই দিন আগে বেলেঘাটার ডিভাইন নার্সিং হোমে আমার স্বামীর কানের একটি অস্ত্রোপচার হয়। আজ ভোরেই আমরা বাংলাদেশে ফিরে যাচ্ছিলাম’।  

মন্তব্য