বেলকুচিতে নির্বাচনী সহিংসতা, বোমা মোতালেবের ভাগ্নে আটক

সংগৃহীত ছবি

বেলকুচিতে নির্বাচনী সহিংসতা, বোমা মোতালেবের ভাগ্নে আটক

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জ-৫ আসনে নির্বাচনের পর একাধিক সংঘর্ষ ও মারপিটের ঘটনায় সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে আমিরুল ইসলাম আকন্দকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে বেলকুচি উপজেলার চালা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

আটক আমিরুল উপজেলার সূবর্ণসাড়া গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে। নির্বাচনের আগে ফজলু শেখ নিহতের মামলার প্রধান আসামি বোমা কারিগর আব্দুল মোতালেব সরকারের ভাগিনা তিনি।

সিরাজগঞ্জ গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মো. জুলহাজ উদ্দীন জানান, নির্বাচনের পর থেকে বেলকুচিতে বেশ কয়েকটি সংঘর্ষ ও মারপিটের ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আমিরুল ইসলাম আকন্দকে আটকের পর বেলকুচি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

তবে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, আমিরুল ইসলাম বিএনপির অঙ্গ সংগঠন জাতীয়তাবাদী শ্রমিকদল বেলকুচি পৌর শাখার সভাপতি ছিলেন। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আব্দুল মমিন মন্ডল নৌকা প্রতিক পাওয়ার পর আমিরুল ইসলাম আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে বেপরোয়া হয়ে ওঠে।

বেলকুচি থানার ওসি মো. আনিছুর রহমান জানান, নির্বাচনের পর বেলকুচিতে বেশ কয়েকটি নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনার সঙ্গে আমিরুল ইসলাম আকন্দ জড়িত সন্দেহে গোয়েন্দা পুলিশ তাকে আটক করেছে। কোন মামলার এজাহারে তার নাম নেই। তবে তদন্তে প্রাপ্ত সন্দেহভাজন আসামি তিনি।

ওসি আরও জানান, নির্বাচনের পর সংঘর্ষের ঘটনায় পাঁচ থেকে ছয়টি মামলা হয়েছে।

news24bd.tv/SHS

এই রকম আরও টপিক