শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা, যুবকের যাবজ্জীবন

সংগৃহীত ছবি

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা, যুবকের যাবজ্জীবন

অনলাইন ডেস্ক

বরিশাল নগরীর পলাশপুর এলাকায় এক শিশুকে ধর্ষণ শেষে হত্যা মামলার রায়ে মো. রাসেল নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।  

সোমবার বিকালে বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. ইয়ারব হোসেন আাসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত রাসেল নগরীর পলাশপুর ৮ নম্বর গুচ্ছ গ্রামের বাসিন্দা মো. সিদ্দিকের ছেলে।  

ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী মো. হুমায়ুন কবির মামলার বরাত দিয়ে জানান, ২০১৩ সালের ২৩ আগষ্ট রাসেল পাশের ঘরে একটি শিশুকে (১৩) একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

শিশুটি এ ঘটনা তার বাবা-মায়ের কাছে বলে দেবে বলে জানায়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে রাসেল শিশুটিকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সহযোগী পলাশ মোল্লার সহায়তা ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে।  

আরও পড়ুন: কাল থেকে বিপিএলের টিকেট বিক্রি শুরু, দাম কত?

শিশু কন্যার মা ঘরে ফিরে এলে ওই দুইজনকে পালিয়ে যেতে দেখে এবং শিশু কন্যাকে আড়ার সঙ্গে ঝুলতে দেখে ডাক-চিৎকার করেন। এ ঘটনায় ২৪ অগাষ্ট শিশু কন্যার বাবা বাদী হয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটনের কাউনিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলায় রাসেল ও পলাশকে অভিযুক্ত করা হয়।  

২০১৪ সালের ৩০ জানুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাউনিয়া থানার এসআই কামাল হোসেন দুইজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এই মামলার অভিযোগপত্র দেন। ৯ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় রাসেলকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন বিচারক। অন্যদিকে অভিযুক্ত পলাশ শিশু হওয়ায় তার বিচার শিশু আদালতে চলছে।

news24bd.tv/কেআই

পাঠকপ্রিয়