হজ নিবন্ধনের সময় না বাড়ানোর নির্দেশ ধর্মমন্ত্রীর

ধর্মমন্ত্রী ফরিদুল হক খান

হজ নিবন্ধনের সময় না বাড়ানোর নির্দেশ ধর্মমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক

হজযাত্রীদের নিবন্ধনের সময়সীমা না বাড়ানো প্রসঙ্গে ধর্মমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, ১৮ জানুয়ারি হজের নিবন্ধন শেষ হয়েছে। আমরা হজ এজেন্সি অ্যাসোসিয়েশনের (হাব) সঙ্গে গত পরশুদিন মিটিং করেছি। তাদের আল্টিমেটাম দিয়েছি, ফারদার আমরা এটা (সময় বাড়ানো) আর করতে চাই না। বাংলাদেশ সব দিক দিয়ে যখন এগিয়ে যাচ্ছে, তখন আমরা আর পিছিয়ে থাকতে চাই না।

অতএব আমরা হজের নিবন্ধনের তারিখ পরিবর্তন করতে চাই না।

মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে হজের নিবন্ধনের সময়সীমা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

হজযাত্রীদের নিবন্ধন নিয়ে হজ এজেন্সি মালিকদের দোষারোপ করে ধর্মমন্ত্রী বলেন, ‘একদিকে সার্ভার জটিলতাসহ নানা কারণে এখনো প্রায় ৭৪ হাজার মুসুল্লি নিবন্ধন করতে পারেনি। বাংলাদেশের মানুষ সব কাজ ঢিলেঢালাভাবে করতে করতে এমন পর্যায়ে পৌঁছায় পরে আর সময় থাকে না।

এবারই প্রথম না, প্রতি বছরই বাংলাদেশের এজেন্সি মালিকরা এই কাজটি (সময় বিলম্ব) করে থাকেন। তারা সব সময় চিন্তা করেন শেষ সময়ে গিয়ে কম ভাড়ায় বাসা পাই কিনা, তারা এই পলিসি এডাপ্ট করে। যে কারণে আমরা এই পলিসি বন্ধ করার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ’

হজ এজেন্সি মালিকদের দোষলেও তিনি তার বক্তব্যের শেষে সৌদি সরকারের কাছে সময় পরিবর্তন বিষয়ে কথা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানান ধর্মমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে আমরা সৌদি সরকারের সাথে কথা বলেছি। যদি তারা সময় পরিবর্তনের জন্য দুই-চার দিনের জন্য সুযোগ দেয়, আমরাও সময় বাড়ানোর জন্য কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। না হলে আমাদের এই পর্যন্তই শেষ। ’

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে শপথ এবং ধর্মমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার পর আজ মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো তিনি জামালপুর সফরে আসেন। তিনি মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় চত্ত্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

news24bd.tv/আইএএম