জর্ডানে ড্রোন হামলায় নিহত ৩ মার্কিন সৈন্য, আহত ৩৪

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

জর্ডানে ড্রোন হামলায় নিহত ৩ মার্কিন সৈন্য, আহত ৩৪

অনলাইন ডেস্ক

সিরিয়া সীমান্তের কাছাকাছি জর্ডানের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ইরান সমর্থিত সশস্ত্র গোষ্ঠীর ড্রোন হামলায় তিনজন মার্কিন সৈন্য নিহত এবং ৩৪ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। খবর রয়টার্সের।

রোববারের(২৮ জানুয়ারি) হামলার ঘটনাটি ৭ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধের পর থেকে মার্কিন বাহিনীর ওপর সংঘটিত প্রথম কোনো হামলার ঘটনা, যা পুরো মধ্যপ্রাচ্য জুড়ে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে।

এক বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, যদিও আমরা এই মুহূর্তে হামলা সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহ করছি, তবে আমরা জানি সিরিয়া এবং ইরাকে সক্রিয় ইরান সমর্থিত সশস্ত্র গোষ্ঠীই এই হামলা চালিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানান, ৩৪ জন মার্কিন সৈন্য হামলার ফলে মস্তিষ্কে আঘাত পেয়েছেন। আহতদের মধ্যে কয়েকজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সামরিক ঘাঁটি থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

হোয়াইট হাউজ থেকে প্রকাশিত বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আমরা আমাদের অভিযান চালিয়ে যাবো এবং হামলার সাথে জড়িতদের আমরা আমাদের সময় ও সুযোগমতো জবাব দেবো।

ইরান সমর্থিত ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সামি আবু জুহরি হামলাটিকে গাজায় ইসরায়েলি আগ্রাসনের সাথে সম্পর্কিত করেছেন।

রয়টার্সকে তিনি জানান, তিনজন মার্কিন সৈন্যের হত্যা এই বার্তাই দিচ্ছে যে গাজায় যদি ইসরায়েলি হামলা বন্ধ না হয় তাহলে যুক্তরাষ্ট্রকে এরকম আরও হামলার শিকার হতে হবে।

জর্ডান সরকারের একজন মুখপাত্র রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনকে হামলাটি জর্ডানের বাইরে অন্য একটি মার্কিন ঘাঁটিতে ঘটেছে বলে জানিয়েছেন।

২০১১ সালে সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র জর্ডানকে সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদারের জন্য ১ বিলিয়ন ডলার দিয়েছে।

ইরান সমর্থিত কোন গোষ্ঠী হামলা চালিয়েছে সেটি পরিষ্কার না হলেও ধারণা করা হচ্ছে ইরানের সামরিক বাহিনী এই হামলার সাথে সরাসরি যুক্ত নয়।

news24bd.tv/ab

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়