মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ১৯ মিনিট আগে

ছাত্রলীগ নেতার গুলিতে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আহত

নাসিম উদ্দীন নাসিম, নাটোর প্রতিনিধি

ছাত্রলীগ নেতার গুলিতে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আহত

নাটোর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমসের ছোঁড়া গুলিতে আহত হয়েছেন এনএস সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার রিওন। তাকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

তবে গুলিবর্ষণের পর স্থানীয়দের হামলার শিকার হয়ে আহত হন ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমস। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এছাড়া জেমসের সঙ্গে থাকা রুবেল নামে এক সহযোগী আহত হয়।

মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার সময় শহরের দক্ষিণ বড়গাছায় রিওনের বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। তিনি ওই এলাকার আলম সোনারের ছেলে। দুপুর আড়াইটায় পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। ঘটনাস্থল থেকে একটি গুলির খোঁসা পাওয়া গেছে।

এদিকে, ঘটনার পর থেকে দক্ষিণ বড়গাছা এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ওই এলাকায় এখনও পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

রিওনের বাবা আলম সোনার অভিযোগ করেন, তার ফুফাতো বোন রোজিনা খাতুনের স্বামী বালু ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামানের নিকট থেকে বেশ কয়েকদিন ধরে দশ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করছিলেন ছাত্রলীগ সভাপতি জেমস। চাঁদা না পেয়ে সোমবার মধ্যরাতে মনিরুজ্জামানের বালুবাহী ট্রাকটি নিয়ে আসেন জেমস। মঙ্গলবার সকালে এ বিষয়ে রোজিনা খাতুন অভিযোগ জানাতে থানায় গেলে ক্ষিপ্ত হয়ে তার পিছু নেয় জেমস ও তার দলবল। দক্ষিণ বড়গাছার একটি ময়দা মিলের সামনে অবস্থানরত ট্রাকটির সামনে গেলে রোজিনাকে মারতে যায় জেমসরা। 

এসময় রোজিনা দৌড়ে রিওনের বাড়ির সামনে আসে। স্টেশন এলাকা ঘুরে দক্ষিণ বড়গাছা ছোটমোড়ে ভাইয়ের বাড়ির সামনে রোজিনাকে দেখেই এগিয়ে আসে জেমসের নেতৃত্বে রিপন, রুবেল ,রাজীব, হাসিবুল, সালমান, মকবুল সহ ৮/১০ জন। তারা রোজিনাকে মারতে গেলে রিওন বাধা দেয়। এসময় রিওনের বামপায়ের উরুতে গুলি করে মারধর করা হয়। গুলির শব্দে লোকজন এগিয়ে এলে পিছু হটে জেমস ও তার দলবল।

ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামানের স্ত্রী রোজিনা অভিযোগ করেন, গত ২০শে নভেম্বর রাতে জেমস ও তার দলবল তাদের বড়গাছার বাড়িতে গিয়ে ৫০ হাজার টাকা, ৩ ভরি স্বর্ণালংকার, পাসপোর্ট, গাড়ির কাগজপত্রসহ বেশ কিছু জিনিস ছিনিয়ে নেয়। সেগুলো ফেরত পেতে ১০ লাখ টাকা দাবি করে। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করতে গেলে ফিরিয়ে দেন অফিসার ইনচার্জ কাজী জালাল উদ্দীন। এরপর থেকেই আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে জেমস। সর্বশেষ মঙ্গলবার রাতে স্বামী মনিরুজ্জামানের গাড়িটি জোরপূর্ব নিয়ে আসে জেমস। আজ দুপুরে ভাইয়ের বাড়ির সামনে জেমস ও তার দলবল হত্যার উদ্দেশ্য গুলিবর্ষণ করলে ভাতিজা রিওন গুলিবিদ্ধ হয়।

জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমসের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার বড়ভাই রিপন হোসেন গুলিবর্ষণের অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট মন্তব্য করেন।

তিনি জানান, উল্টো রিওন ও স্থানীয়রা তাদের উপর হামলা চালায়। রিওনই জেমসকে উদ্দেশ্য করে গুলবির্ষণ করেন এবং তা ভুলবশত রিওনেরই পায়ে লেগে যায়।

নাটোর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী জালাল উদ্দীন আহমেদ বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো পক্ষই অভিযোগ করেনি। আমরা তদন্ত শুরু করেছি। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/নাসিম/তৌহিদ)
 

মন্তব্য