ডিবি কার্যালয় থেকে বের হয়ে যা বললেন দীঘি

ডিবি কার্যালয়ে দীঘি।

ডিবি কার্যালয় থেকে বের হয়ে যা বললেন দীঘি

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকাই সিনেমার উঠতি নায়িকা প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। তাঁর বিকাশ অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে টাকা নেওয়ার বিষয়ে তিনি অভিযোগ জানান ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে (ডিবি)। তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে আসামি দ্রুত গ্রেপ্তার হয়। সেই সঙ্গে তার বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে হ্যাক হওয়া টাকা উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিল ডিবি।

বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে দেড় লাখ টাকা নিয়ে যায় বলে দীঘি নিজেই জানিয়েছেন।

সোমবার ডিবি কার্যালয় থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের দীঘি বলেন, বিকাশের নির্দিষ্ট নম্বর থেকে একটি কল আসে। আমার বিকাশ নম্বর বন্ধ করে দেয়ায় আমি ওই কলে অনেকক্ষণ ধরেই কথা বলি। এক সময় সে আমার ওটিপি নম্বর চায়।

আমি ভেবেছিলাম, পিন নম্বর না দিলে সে আমার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করতে পারবে না।

দীঘি আরও বলেন, আমি শুটিংয়ের কাজে ও স্ক্রিপ্ট নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। তাই মাথা তেমন কাজ করেনি। এরপর দেখি অ্যাকাউন্ট থেকে দেড় লাখ টাকা নেই। প্রতারণাকারীকে আমার পরিচয় দিয়েছিলাম।

আরও পড়ুন: দীঘির বিকাশ অ্যাকাউন্ট হ্যাক, যাচ্ছেন ডিবি অফিসে

সোমবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ডিবি কার্যালয়ে প্রবেশ করেন দীঘি। এসময় নায়িকার সঙ্গে ছিলেন তার বাবা খ্যাতিমান অভিনেতা সুব্রত বড়ুয়া এবং মামা ভিক্টর।

news24bd.tv/TR  

পাঠকপ্রিয়