চোখে-মুখে আঠা লাগিয়ে ধর্ষণ, এমন রোগী দেখেননি চিকিৎসক

চোখে-মুখে আঠা লাগিয়ে ধর্ষণ, এমন রোগী দেখেননি চিকিৎসক

অনলাইন ডেস্ক

চোখে-মুখে ‘সুপার গ্লু’ আঠা লাগিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর আঠা অপসারণ করা হয়েছে। তবে শারীরিকভাবে দুর্বল থাকায় তিনি কথা বলতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। তিনি জানান, চোখে ও মুখে এভাবে আঠা লাগানো অবস্থায় কোনো রোগী আগে দেখিননি।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে ওই নারীর ছেলে বলেন, সোমবার রাতে তার মায়ের জ্ঞান ফিরেছে।

তবে তিনি কথা বলতে পারছেন না। কিছু বলতে গেলে ইশারা করছেন। তার মায়ের শরীর এখনও বেশ দুর্বল।

এ ব্যাপারে কথা হলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি ইউনিট-২-এর সহকারী রেজিস্ট্রার চিকিৎসক মো. কনক হোসেন বলেন, হাসপাতালে যখন আনা হয়, তখন ওই রোগী পুরোপুরি অজ্ঞান ছিলেন তেমন নয়।

তবে তিনি একটু অবচেতন অবস্থায় ছিলেন। চোখের পাতা ও দুই ঠোঁট শক্ত আঠা দিয়ে লাগানো ছিল। রোগীর শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঁচড়ের দাগ ও ছোট ছোট আঘাতের চিহ্ন ছিল। অস্ত্রোপচার কক্ষে নিয়ে আঠা অপসারণ করা হয়। এরপর রোগীকে পাঠানো হয় চক্ষু ওয়ার্ডে।

‘রোগীর স্বজনদের অভিযোগ ছিল, তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। তাই চক্ষু ওয়ার্ড থেকে তাকে ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়। তবে এর আগে কখনও চোখে ও মুখে এভাবে আঠা লাগানো অবস্থায় কোনো রোগী দেখিনি। ’

পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুর রহমান বলেন, ওই ঘটনায় কেউ মামলা করেননি। তবে অপরাধীদের শনাক্ত করতে অভিযান অব্যাহত আছে।

এর আগে রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে খুলনার পাইকগাছায় চোখ-মুখে ‘সুপার গ্লু’ আঠা দিয়ে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ওই সময় গৃহবধূর কানের দুল ও স্বর্ণালংকারসহ মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

ভুক্তভোগীর পরিবার জানিয়েছে, ওই গৃহবধূর ছেলে বাগেরহাট ও মেয়ে খুলনায় থেকে পড়ালেখা করে। রোববার রাতে তার স্বামী ব্যবসায়িক কাজে গড়ুইখালী বাজারে ছিলেন। এ সুযোগে ভোর তিনটার দিকে দুর্বৃত্তরা মই দিয়ে ছাদে যায়। এরপর সিড়ির দরজা ভেঙে গৃহবধূর বেডরুমে প্রবেশ করে তার চোখে ও মুখে ‘সুপার গ্লু’ আঠা দিয়ে তাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে। পরে গৃহবধূর কানের দুল ও গলার চেনসহ মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায় তারা।

খুলনার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইদুর রহমান জানান, গৃহবধূকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় পাওয়া যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত এবং তাদের আটক করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: দায়িত্ব পেয়েই ‌‘সাফ কথা’ জানিয়ে দিলেন গাজী আশরাফ

আরও পড়ুন: ২৫৫ কেজি ওজনের বাঘের মরদেহ উদ্ধার, ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

news24bd.tv/তৌহিদ

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়