জমি নিয়ে বিরোধের জেরে হামলা-ভাঙচুরের অভিযোগ

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে হামলা-ভাঙচুরের অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর সুধারামে নেয়াজপুর ইউনিয়নের ধন্যপুর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এক গৃহবধূর বাড়িতে হামলা ভাঙচুর ও জায়গা দখলের অভিযোগ উঠেছে।  ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দুপুরে আহতের বসতবাড়িতে। গুরুত্বর আহত অবস্থায় বিবি হালিমাকে (৪০) নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

হাসপাতালে আহতদের স্বজনরা জানান, জায়গা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের বাকের ও সুমনের নের্তৃত্বে ২০/২৫ জন সকাল থেকে আমাদের বাড়িতে জোরপূর্বক দখল করে এবং গাছ কেটে নিয়ে ও কল ভেঙ্গে নিয়ে যায়।

পরবর্তী আমাদের মালিক ও দখলীয় ভূমিতে জোরপূর্বক টিনের ভেড়া দিয়ে দখল করে। এক পর্যায়ে তাদেরকে বাধা দিলে তারা অতর্কিত এসে সে গৃহবধূ হালিমাকে মারধর করে। এ সময় তার হাতে ও মাথায় প্রচণ্ড আঘাত করে।  

পরে তারা ৯৯৯ ফোন দিয়ে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদেরকে উদ্ধার হাসপাতালে পাঠায়।

আহত গৃহবধূ ও তার পরিবার জানান, দীর্ঘদিন থেকে আমরা জায়গা কিনে মালিক ও দখল থাকিয়া বাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসতেছি। প্রতিবেশি বাকের জায়গা পাবে বলে দাবি করে প্রভাব খাটিয়ে আমাদের জায়গা দখলের চেষ্টা করে আসছে এবং বিভিন্ন সময়ে আমাদেরকে হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে।

এ নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদে একাধিকবার বৈঠক হলেও বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধান হয়নি বলে তারা অভিযোগ করেন। তারই অংশ হিসেবে বুধবার তারা পরিকল্পিত ভাবে সন্ত্রাসী কায়দায় বাকের ও সুমনের নের্তৃত্বে আমাদের বাড়ি ঘরে হামলা ভাঙচুর ও জবর দখল করে।  

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সুধারাম থানার এসআই ত্রিদীব বড়ুয়া সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সকাল থেকে জায়গা দখলের চেষ্টা করছে বলে খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত হালিমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছি। বিষয়টি স্থানীয় চেয়ারম্যান অবগত আছেন।  

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে নেয়াজপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আমির হোসেন বাহাদুর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পরিষদে অনেকবার বৈঠক হয়েছে। এ নিয়ে ইউপি আদালতে মামলা হয়েছে। আমি তিনজন মেম্বারকে দিয়ে টিম করে জায়গা পরিমাপ করে দেওয়ার জন্য পাঠিয়েছি। মেম্বারদের উপস্থিতিতে কোন হামলা হয়নি, তবে কেউ যদি ভাঙচুর করে এটা ঠিক হয়নি। কেউ ভাঙচুর করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।  

news24bd.tv/কেআই

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়