চিনির যে পরিমাণ মজুদ আছে, তাতে দাম বাড়বে না: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

চিনির যে পরিমান মজুদ আছে, তাতে দাম বাড়বে না: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

চিনির যে পরিমাণ মজুদ আছে, তাতে দাম বাড়বে না: বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু বলেছেন, নিশ্চিত থাকতে পারেন, যে পরিমাণ মজুদ আছে,  তাতে চিনির দাম বাড়বে না। তিনি বলেন, আমরা জানতে পেরেছি, কেউ কেউ দাম বাড়ানোর চেষ্টা করছে, এই অসাধু চেষ্টা কেউ করবেন না।  

বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) কলোনি বাজার পলিটেকনিক মাঠে টিসিবি কর্তৃক আয়োজিত টিসিবি পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, কিছুদিন আগে একটি চিনির গুদামে আগুন লেগেছে।

আমরা বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছি। বিভিন্ন মিলের সাথে যোগাযোগ করেছি। তাদের কাছে যে পরিমাণ চিনি মজুত আছে, আশা করছি বাজারে চিনির কোনো সংকট হবে না।

টিসিবি'র চিনির দাম নিয়ে গতকালকের সার্কুলাটা ভুলবশত গিয়েছে বলে দুঃখপ্রকাশ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাজারে চিনির মূল্য ১৪০ টাকা কেজি হওয়ায় টিসিবি'র চিনির দাম সমন্বয়ের একটি প্রস্তাব ছিলো।

যার ফলে ৩০ টাকা বাড়িয়ে পূর্বের ৭০ থেকে দাম বাড়িয়ে ১০০ করা হয়েছিলো। তবে পবিত্র রমজান বিবেচনায় আগের ৭০ টাকা কেজিতেই চিনি বিক্রি করবে টিসিবি। প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, বর্তমান সরকার যখন দায়িত্ব নেয় তখন চালের বাজার অস্থির ছিলো, এখন ঠিক হয়েছে। তেলের দামও ঠিক করার চেষ্টা চলছে। এস আলম সুগার মিলে আগুন লাগার পরই সরকার মনিটরিং শুরু করেছে।  

তিনি বলেন, আগামী তিন মাসের মধ্যে লোক ঠিক করা হবে সাপ্লাই চেইনের প্রতিটি জায়গায়। মিলকে ঠিক করে দেয়া হবে পাইকারী বিক্রেতা এবং পাইকারী বিক্রেতাকে ঠিক করে দেয়া হবে খুচরা বিক্রেতা।  কিছু সুবিধাভোগী লোক আছে বাজার ব্যবস্থাপনার ত্রুটিগুলোকে সুবিধা হিসেবে নেয়।  

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বাজার বাজার নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে না ; আমরা সরবরাহ বাড়ানোর চেষ্টা করছি। যৌক্তিক মূল্য যেন বাজারে বজায় থাকে। প্রয়োজনে জরুরী আইনে ব্যবস্থা নেয়া হবে যদি কেউ অযৌক্তিকভাবে বাজারে শৃঙ্খলা নষ্ট করে।  

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন— বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ, টিসিবির চেয়ারম্যান মো. আরিফুল হাসান প্রমুখ।

news24bd.tv./aa
 

পাঠকপ্রিয়