বসুন্ধরার ইফতারে খুশি মাদরাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

বসুন্ধরার ইফতারে খুশি মাদরাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকার কেরানীগঞ্জে পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে বিভিন্ন মসজিদ-মাদরাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থী, থানা পুলিশ, ডিবি পুলিশ ও ট্রাফিক পুলিশের মধ্যে মাসব্যাপী ইফতারের ব্যবস্থা করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। এই উদ্যোগের ফলে কেরানীগঞ্জে বসুন্ধরা রিভারভিউ আবাসিক এলাকার তিনটি মাদরাসা, দুটি থানা, ডিবি পুলিশ কার্যালয় ও ট্রাফিক পুলিশ কার্যালয়ে প্রায় দুই হাজার লোকের মধ্যে প্রতিদিন ইফতারি বিতরণ করা হচ্ছে।

আজ রোববার (১৭ মার্চ) বসুন্ধরা রিভারভিউ আবাসিক এলাকায় জামিয়া রাব্বানিয়া আরাবিয়া বসুন্ধরা মাদরাসায় গিয়ে দেখা যায়, শিক্ষার্থীরা বসুন্ধরা গ্রুপের পাঠানো ইফতারসামগ্রী পরিবেশন করার জন্য সাজিয়ে রাখছে। ইফতারি পেয়ে খুব খুশি মাদরাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

তাদের ভাষ্য, দ্রব্যমূল্য যেভাবে ঊর্ধ্বগতিতে ছুটছে, সেখানে ভালো খাবার তো দূরের কথা, সামান্য ডাল-ভাত জোটানোই দায়। এমন পরিস্থিতিতে বসুন্ধরা গ্রুপ মাদরাসার সবার জন্য ভালো মানের ইফতারসামগ্রী দিয়েছে। এ জন্য এই গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) প্রতি তারা কৃতজ্ঞ।

একজন শিক্ষক ইফতারের আগে দোয়া করেন।

এ সময় বসুন্ধরা গ্রুপের পুরো পরিবারের মঙ্গল কামনা করা হয়।

মাদরাসার ছাত্র আব্দুল্লাহ মতিন বলেন, রোজায় পড়াশোনার জন্য মাদরাসায় রয়ে গেছি। তিনি বলেন, ‘আমাদের এখানে ইফতার করার জন্য বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে প্রতিদিন খাবার আসে। এই মাদরাসায় অনেক এতিম ও অসহায় শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে। বসুন্ধরা গ্রুপ সব সময় আমাদের পাশে থাকায় আমরা কোনো কিছুর অভাব বুঝতে পারি না। এসব এতিমের দোয়া তারা পাবে। ’

বসুন্ধরা গ্রুপের ইফতারসামগ্রী পেয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন মাদরাসার আরেক ছাত্র মো. আবিদ বলেন, ‘বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যাবসায়িক সফলতা কামনা করে আমরা দুই হাত তুলে আল্লাহর দরবারে মোনাজাত করি। এতিম শিক্ষার্থীদের পাশে থাকায় বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের সুস্থতা কামনা করে সবাই দোয়া করেছি।

বসুন্ধরা রিভারভিউ আবাসিক এলাকায় জামিয়া রাব্বানিয়া বসুন্ধরা মাদরাসার  প্রধান শিক্ষক হাফেজ কারি হেদায়াতুল্লাহ বলেন, বর্তমানে মাদরাসায় প্রায় ১২৬ জন শিক্ষার্থী আছে। এখানে ১০ জন শিক্ষক ও চার খাদেম রয়েছেন। তাদের সবার ইফতারি বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে পাঠানো হয়। এই মাদরাসায় নুরানি মক্তব থেকে হিফজ পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা করেন। ২৬ রমজান পর্যন্ত মাদরাসা খোলা থাকবে।

ইফতারি বিতরণ অনুষ্ঠানে মাদরাসা সহকারী পরিচালক মাওলানা আবুল বাসার সাহেব বলেন, ‘পবিত্র রমজান মাসে দেশব্যাপী বিভিন্ন জায়গায় ইফতারি বিতরণের জন্য বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। রোজাদার ব্যক্তিদের ইফতার করানো খুবই সওয়াবের কাজ। কেউ কোনো রোজাদারকে ইফতার করালে তিনি রোজাদারের সমান সওয়াব পান। আল্লাহ যেন তাকে উত্তম প্রতিদান দেন। দোয়া করি বসুন্ধরা গ্রুপ যেন ভবিষ্যতে আরো বেশি মানুষকে ইফতার করানোর তৌফিক অর্জন করে। দোয়া করি দেশের সব অসহায় ও গরিব মানুষ এ সেবা পাক। ’

বসুন্ধরা গ্রুপের পক্ষ থেকে চলতি রমজানে কেরানীগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় দৈনিক ২০ হাজার ৮০০ মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে রয়েছে উপজেলা কেরানীগঞ্জের কোণ্ডা ইউনিয়নের তিনটি মাদরাসা, কেরানীগঞ্জ মডেল থানা, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা, ঢাকা জেলা ডিবি পুলিশ (দক্ষিণ) ও ঢাকা জেলা দক্ষিণ ট্রাফিক পুলিশ।

বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহানের পক্ষ থেকে প্রথম রমজান থেকে প্রতিদিন ইফতার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

news24bd.tv/SHS

এই রকম আরও টপিক