লোডশেডিং বন্ধ না হলে নতুন কর্মসূচি দেবেন ব্যারিস্টার সুমন

সংগৃহীত ছবি

লোডশেডিং বন্ধ না হলে নতুন কর্মসূচি দেবেন ব্যারিস্টার সুমন

অনলাইন ডেস্ক

ইদানিং হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় দৈনিক ১৮ ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে। উপজেলায় বিদ্যুতের চাহিদা পূরণ না হওয়ায় কয়েক বছর ধরেই লোডশেডিংয়ের ধকল সইতে হচ্ছে গ্রাহকদের। এমন অবস্থায় লোডশেডিং বন্ধ না হলে মহাসমাবেশের ডাক দেবেন বলে ঘোষণা দিয়েছে সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সমুন। যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত সুমন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক পেজে এমন হুঁশিয়ারি দেন।

ওই পোস্টে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ থেকে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুৎ যাচ্ছে। আর আমরা হবিগঞ্জের মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছি না। তিনিসহ হবিগঞ্জের তিন সংসদ সদস্যকে নিয়ে মহাসমাবেশের ডাক দেবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন ব্যারিস্টার সুমন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চুনারুঘাট উপজেলায় বিদ্যুতের চাহিদা ১৬ মেগাওয়াট।

পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ৭ মেগাওয়াট। এ অবস্থায় উপজেলায় দৈনিক ১৮ ঘণ্টাই বিদ্যুৎ থাকছে না। ৬ ঘণ্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ থাকলেও তা আসার-যাওয়ার মধ্যেই থাকছে। এতে প্রচণ্ড দাবদাহে মানুষের দুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগ হাসপাতাল ও স্কুলগুলোতে।  

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির চুনারুঘাট কার্যালয় সূত্র জানায়, চুনারুঘাট উপজেলার দেওরগাছ ও রাজার বাজার সাবস্টেশনের মাধ্যমে উপজেলার প্রায় ৮০ হাজার গ্রাহককে বিদ্যুৎ সুবিধা দেওয়া হয়। আবাসিক, বাণিজ্যিক, শিল্প ও কৃষি গ্রাহকের জন্য দৈনিক বিদ্যুৎ প্রয়োজন ১৫ থেকে ১৬ মেগাওয়াট। অথচ দুটি সাবস্টেশন দৈনিক পাচ্ছে মাত্র ৭ থেকে ৮ মেগাওয়াট।

এ অবস্থায় বিদ্যুৎ বিভাগ পড়েছে চরম সংকটে। তারা আবাসিকে বিদ্যুৎ দেবে নাকি উপজেলার চা শিল্প টিকিয়ে রাখতে শিল্প খাতে বিদ্যুৎ দেবে।

news24bd.tv/আইএএম

পাঠকপ্রিয়