দিল্লি কংগ্রেসপ্রধানের পদত্যাগ

অরবিন্দর সিং লাভলি

দিল্লি কংগ্রেসপ্রধানের পদত্যাগ

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে লোকসভা নির্বাচন চলাকালে কংগ্রেস শিবির একটা বড় ধাক্কা খেলো। রোববার সকালে ( ২৮ এপ্রিল) দিল্লি কংগ্রেসের সভাপতি অরবিন্দর সিং লাভলি পদত্যাগ করেছেন। পদত্যাগের কারণ হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে তিনি বলেন , দিল্লির কংগ্রেস কর্মীদের স্বার্থরক্ষা করতে পারেননি তিনি। তাই পদত্যাগ করছেন।

কিন্তু গোপন খবর হচ্ছে  দিল্লিতে আম আদমি পার্টির (এএপি) সঙ্গে কংগ্রেসের জোট বাঁধার কারণেই ক্ষোভে তিনি পদত্যাগ করেছেন । আনন্দবাজার পত্রিকা ও জি নিউজ।  
অরবিন্দর সিং লাভলি দীর্ঘদিনের কংগ্রেস নেতা। মাঝখানে ২০১৭ সালের দিকে একবার বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি।
কয়েক মাসের মধ্যে প্রত্যাবর্তন করেন কংগ্রেসে। আম আদমি পার্টির প্রবল বিরোধী হিসাবে পরিচিত লাভলি।
গত বছরের আগস্টে লাভলিকে দিল্লি কংগ্রেসের সভাপতি করা হয়েছিল। তখন তিনি অনিল চৌধুরীর স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন।
২০০৩ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত শীলা দীক্ষিতের নেতৃত্বাধীন দিল্লির কংগ্রেস সরকারের মন্ত্রী ছিলেন লাভলি। ২০১৩ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত তিনি দিল্লি প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি ছিলেন। ২০১৭ সালে তিনি কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যান। ২০১৮ সালে তিনি আবার কংগ্রেসে ফেরেন।
এনডিটিভির খবরে বলা হয়, জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গেকে দেওয়া চিঠিতে লাভলি বলেন, 
দিল্লি কংগ্রেসের প্রধান হিসেবে তাঁর নেওয়া বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্তে ভেটো দিয়েছেন সর্বভারতীয় কংগ্রেস কমিটির সাধারণ সম্পাদক (দিল্লির দায়িত্বপ্রাপ্ত)।
লাভলি আরও বলেছেন, দিল্লি কংগ্রেসের সভাপতি নিযুক্ত হওয়ার পর থেকে তাঁকে এই শাখায় কোনো বড় পদে কাউকে নিয়োগ দেওয়ার সুযোগ পর্যন্ত দেয়নি সর্বভারতীয় কংগ্রেস কমিটির সাধারণ সম্পাদক (দিল্লির দায়িত্বপ্রাপ্ত)।
ফলে তিনি অনেকটাই নিষ্ক্রিয় ছিলেন বলে দাবি করেন। আর নিষ্ক্রিয় থেকে কারো জন্যে কিচু করা সম্ভব নয় বলেই পদত্যাগ করেছেন।  

news24bd.tv/ডিডি
 

পাঠকপ্রিয়