ঠাকুরগাঁওয়ে শ্বাসরোধে অন্তঃসত্ত্বাকে হত্যা, স্বামীসহ পলাতক পরিবার

ঠাকুরগাঁওয়ে শ্বাসরোধে অন্তঃসত্ত্বাকে হত্যা, স্বামীসহ পলাতক পরিবার

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় সাহানাজ বেগম (২০) নামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর থেকে গৃহবধূর স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে।

শুক্রবার সকালে সদর উপজেলার রহিমানপুর ইউনিয়নের উত্তরপাড়া গ্রামে গৃহবধূর শ্বশুর বাড়িতে তার মরদেহ দেখতে পায় প্রতিবেশীরা। নিহত সাহানাজ বেগম গ্রামের বিশাল রহমানের স্ত্রী।

তিনি ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন রহিমানপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান হান্নু। তিনি বলেন, বেশ কয়েকদিন থেকে তাদের ঝগড়া চলছে। গত রাতেও তারা ঝগড়া করেছে।

অনুমান করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরুদ্ধ করে মারা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, রাত থেকেই তাদের বাড়ির সবাই পলাতক রয়েছে। প্রতিবেশীরা সকালে খবর নিতে গেলে ওই গৃহবধূর মরদেহ দেখতে পায়। এসময় তার স্থানীয় চেয়ারম্যান ও পুলিশে খবর দেয়। ছেলেটি মাদকের সাথে জড়িত ছিল৷ পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছেন। তদন্ত সাপেক্ষে তারা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

নিহত ও গৃহবধূর বাবা মায়ের অভিযোগ, প্রায় সময়েই মেয়েটির সাথে ঝগড়া করত তার স্বামী ও শাশুড়ি। শুক্রবার রাতেও মেয়েটির সাথে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে তারা গলা টিপে হত্যা করে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন পালিয়েছে। এর সুষ্ঠু বিচার চায় পরিবারটি।

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এবিএম ফিরোজ ওয়াহিদ বলেন, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এখনো পর্যন্ত কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

news24bd.tv/FA