নদীতে ভাসছিল লাগেজে ভর্তি ত্রি-খণ্ডিত মরদেহ, পাশেই পড়ে ছিল মাথা 

নদীতে ভাসছিল লাগেজে ভর্তি ত্রি-খণ্ডিত মরদেহ, পাশেই পড়ে ছিল মাথা 

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

ময়মনসিংহ সদর উপজেলার ময়মনসিংহ-টাঙ্গাইল সড়কের মনতলা নামক স্থানে সেতুর নিচে সুতিয়া নদীতে ভাসছিল একটি লাগেজ। সেই লাগেজ খুলতেই দেখা মিলে মাথা বিচ্ছিন্ন করা একটি দেহ ও কাটা দুই পা। এর অদূরেই পড়েছিল পলিথিনে মোড়ানো মাথা।

রোববার সকালে ত্রি-খণ্ডিত ওই মরদেহটি উদ্ধার করে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানা-পুলিশ।

এর আগে স্থানীয়রা গরু চড়াতে গিয়ে খণ্ডিত মাথাটি দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।

ময়মনসিংহ অঞ্চলের সিআইডি ক্রাইম সিন ইউনিটের ওসি মো. ইউসুফ জানান, নৃশংস এ হত্যাকাণ্ডটি সুপরিকল্পিত। ভিকটিমকে যেন সহজেই শনাক্ত করা না সেজন্য তার আঙ্গুলের ছাপ নষ্ট করা হয়েছে। এছাড়াও যে কক্ষে তাকে হত্যা করা হয়েছে সেই কক্ষের পর্দা, বিছানার চাদর, বালিশ সব কিছুই লাশের সাথে দিয়ে দেয় হত্যাকারীরা।

আমাদের ধারণা হত্যাকাণ্ডের সময় গ্লাভস ব্যবহার করে খুনীরা।

কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন জানান, দীর্ঘ চেষ্টার পর নির্মমভাবে খুন হওয়া ওই যুবকের পরিচয় শনাক্ত করা গেছে। তার নাম সৌরভ (২৭)। সে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার তাড়াটি ইউনিয়নের বাসিন্দা। তবে কি কারণে এবং কোথায় খুন হয়েছে সে বিষয়ে এখনো জানা যায়নি। তবে রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে পুলিশ।

news24bd.tv/তৌহিদ

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়