‘ডেড বল’ বিতর্কে বাংলাদেশের হার, আইনের বদল চান ওয়াকার

‘ডেড বল’ বিতর্কে বাংলাদেশের হার, আইনের বদল চান ওয়াকার

অনলাইন ডেস্ক

নাসাউ কাউন্টিতে আবারও লো স্কোরিং থ্রিলার দেখল বিশ্ব। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের পর গতকাল বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচেও হয়নি তেমন রান, তবে দুই দলের লড়াইটা হয়ে জমপেশ। যদিও শেষ পর্যন্ত অনেক বিতর্কিত ঘটনার মধ্যে দিয়ে হারে বাংলাদেশ।

সেই হারের পর অনেকেই কাঠগড়ায় তুলেছেন আম্পায়ার রিচার্ড ইলিংওয়ার্থকে।

কেননা তার বেশ কিছু বিতর্কিত সিদ্ধান্তের কারণেই শেষ পর্যন্ত ৪ রানে হারে বাংলাদেশ।

ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে তাওহীদ হৃদয়ের আম্পায়ার্স কলে আউট হওয়া কিংবা ‘ডেড বল’ আইনে লেগ বাইয়ে চার না পাওয়া - বিষয়টি নিয়ে যেমন কথা বলছেন বাংলাদেশিরা, তেমনি মুখ খুলেছেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার ওয়াকার ইউনুসও।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে ওয়াকার জানিয়েছেন, চরম বিতর্কিত এই ডেড বল আইন বদলানো উচিত। তিনি বলেছেন, ‘আম্পায়ারের এলবিডব্লিউ সিদ্ধান্তে বিতর্কিত ডেড বলের আইনটি বদলানো উচিত।

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে লো স্কোরিং থ্রিলারে বাংলাদেশের ক্ষতি করে দিয়েছে এটাই। ’

উল্লেখ্য, ইনিংসের ১৭তম ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকার ডানহাতি পেসার ওটেনিল বার্টম্যানের একটি ডেলিভারি ফ্লিক করতে গেলে প্যাডে লেগে যায় মাহমুদউল্লাহর। আবেদন করার সঙ্গে সঙ্গেই আম্পায়ার আঙুল তুলে দেন। এরপর রিভিউ নেন মাহমুডউল্লাহ। রিভিউতে দেখা যায়, বল লেগ-স্ট্যাম্প মিস করেছে। ফলে বেঁচে যান মাহমুদউল্লাহ।

এদিকে বল তার প্যাডে লেগে বল বাউন্ডারি পার হয়ে যায়। লেগবাই হিসেবে তখন ৪ রান পাওয়ার কথা বাংলাদেশের। কিন্তু আম্পায়ার শুরুতে আউট দেওয়ায় বল ডেড হয়ে বাতিল হয়ে যায় সেই ৪ রান।

শেষ পর্যন্ত ওই ৪ রানই গড়ে দেয় ম্যাচের ব্যবধান। দক্ষিণ আফ্রিকার দেওয়া ১১৪ রান তাড়া করতে নেমে ৪ রানেই হারে বাংলাদেশ।

news24bd.tv/SHS

পাঠকপ্রিয়