ধর্ষণচেষ্টা মামলার বাদীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ

ধর্ষণচেষ্টা মামলার বাদীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক

ফরিদপুরে ভাঙ্গায় ধর্ষণ চেষ্টা মামলার বাদীর বাড়িতে গভীর রাতে হামলার অভিযোগ উঠেছে। হামলাকারীরা বাদীর বসতঘরের বেড়া কুপিয়েছে ও সীমানা বেড়া ভাঙচুর করেছে। পরে বাড়ির লোকজন টের পেয়ে চিৎকার করলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে ভাঙ্গা উপজেলার নুরুল্লাগঞ্জ ইউনিয়নের বাররা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার নুরুল্লাগঞ্জ ইউনিয়নের বাররা গ্রামে গত ৯ জুন ৩ বছরের এক শিশু বাচ্চাকে বাড়ি থেকে প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় একই গ্রামের অটোভ্যান চালক রহিম শেখ (৩৫)। এ ঘটনার শিশুটির মা বাদী হয়ে ভাঙ্গা থানায় রহিম শেখের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা করেন। মামলা করার পরদিনই বাদীর বাড়িতে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণচেষ্টার শিকার হওয়া শিশুটির দাদি বলেন, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে আমাদের বাড়ির সীমানা বেড়া ভাঙচুরের শব্দ শুনতে পাই।

হঠাৎ করে ঘর কোপানোর শব্দ শুনতে পাই। আমি চিৎকার দিলে এলাকাবাসী ছুটে আসে। তখন হামলাকারী ৮-১০ জন লোক ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। ওই রাতে আমার নাতনীকে চিকিৎসা করানোর জন্য আমার ছেলে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছিল। আমি আমার অন্য নাতনিদের নিয়ে রাতে বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলাম।

শিশুটির বাবা বলেন, আমি আমার শিশু মেয়েটিকে চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছিলাম। সেখান থেকে খবর পাই রাতে আমার বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। আমিসহ আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

ধর্ষণ চেষ্টা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভাঙ্গা থানার উপপরিদর্শক আব্দুল হক খলিফা বলেন, বাদীর বাড়িতে হামলার খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বাদীর বসত ঘরের টিনের বেড়ায় কোপের দাগ দেখতে পাই। একটি টিনের বেড়া ভাঙচুর করা হয়েছে। কে বা কারা, এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানা যায়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

news24bd.tv/কেআই

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়