এমপি আনার হত্যা: মিন্টু আটকের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মানববন্ধন

এমপি আনার হত্যা: মিন্টু আটকের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মানববন্ধন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকাণ্ডে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু আটকের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

বুধবার ১২টার দিকে মিন্টু অনুসারীরা শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। খণ্ড খণ্ড মিছিল শহরের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বের শহরের পায়রা চত্বরে এসে শেষ হয়। সেখানে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আনিচুর রহমান খোকা, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহরিয়ার করিম রাসেল, সাধারণ সম্পাদক রানা হামিদ, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আল-ইমরানসহ মিন্টুপন্থী নেতৃবৃন্দ। মানববন্ধন কর্মসূচিতে দাবি করা হয়, এমপি আনার হত্যা মামলায় বিন্দুমাত্র জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জড়িত না থাকলেও তাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানো হচ্ছে। তারা অবিলম্বে প্রিয় নেতার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।

অন্যদিকে এমপি আনার হত্যার প্রতিবাদে জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার ফুরসন্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে টিকারী বাজারে বিক্ষোভ মিছিল শেষে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেয়। সেসময় ফুরসন্দী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শহীদুল ইসলাম শিকদার, কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শিবলী নোমানী, পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলমসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা বলেন, জেলার আওয়ামী লীগের অভিভাবকের কাছে যদি কর্মীরা নিরাপদ না হয় তাহলে তাকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হোক। সংসদ সদস্য হত্যার নেপথ্যে ও যারা সরাসরি জড়িত তাদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানান তারা।

এছাড়া ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু আটক হওয়ায় কালীগঞ্জে মিছিল করেছে আনারের অনুসারীরা। মঙ্গলবার রাতে শহরের ভূষণ স্কুল সড়কের দলীয় কার্যালয় থেকে মিছিলটি বের করা হয়। মিছিলটি প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার একই স্থানে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শিবলী নোমানী, পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম, ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুজ্জামান রাসেল, ইউপি চেয়ারম্যান নাসির চৌধুরীসহ অন্যরা। সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘জনপ্রিয় এমপি আনারকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। এই হত্যার নেপথ্যে কারা সেটা আমরা পেয়েছি।

উল্লেখ্য, জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক কাজী কামাল আহমেদ বাবু ওরফে গ্যাস বাবু ও তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুকে ঢাকা ধানমন্ডি এলাকা থেকে মঙ্গলবার বিকাল ৪টার দিকে ডিবির একটি দল তাকে গ্রেপ্তার করে।

news24bd.tv/FA

এই রকম আরও টপিক