কষ্টের জয়ে সুপার এইটে ভারত

কষ্টের জয়ে সুপার এইটে ভারত

অনলাইন ডেস্ক

নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টিতে ১১০-২০ রান করেই যে জেতা যায় তার উদাহরণ এ সপ্তাহেই আছে। উড়তে থাকা যুক্তরাষ্ট্রও গতকাল ১১০ রান করে জয়ের স্বপ্ন দেখছিল ভারতের বিপক্ষে। বিশেষ করে ১০ রানের মধ্যেই ভারতের দুই তারকা ওপেনারকে ফিরিয়ে আরও একটি ইতিহাস গড়ার ইঙ্গিত দিচ্ছিল দলটি। তবে শেষ পর্যন্ত ভারতের শক্তিমত্তার সঙ্গে পেরে ওঠা হয়নি স্বাগতিকদের।

 

গতকাল বুধবার (১২ জুন) নাসাউ কাউন্টিতে ভারত জিতেছে ৭ উইকেটে। তবে ১১১ রান তাড়ায় দলটিকে খেলতে হয়েছে ১৮ ওভার ২ বল। একপ্রকার কষ্টে পাওয়া এ জয়ে সুপার এইটে উঠে গেছে ভারত। অপরদিকে টানা দুই জয়ের পর এই হারে সুপার এইটের জন্য শেষ ম্যাচের অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রকে।

 

এদিন টসে জিতে যুক্তরাষ্ট্রকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় ভারত। এরপর প্রথম বলেই তুলে নেয় ওপেনার শায়ন জাহাঙ্গীরের উইকেট। তাকে ফেরার অর্শদীপ। ম্যাচে আরও ৩ উইকেট নেন এই বাঁহাতি পেসার। আন্দ্রেয়াস গুস, নিতিশ কুমার এবং হারমিত সিংয়ের উইকেটও তুলে নেন তিনি। আগুনঝরা বোলিংয়ে মাত্র ৯ রানে ৪ উইকেট নেন তিনি।  

ভারতের অন্য দুই পেসার মোহাম্মদ সিরাজ ও জসপ্রীত বুমরাহ এদিন ছিলেন উইকেটশূন্য। তবে মাত্র ১৪ রান দিয়ে দুই উইকেট পকেটে পোরেন হার্দিক পান্ডিয়া। অক্ষর প্যাটেল পান ১ উইকেট। যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন নিতিশ। ২৪ রান আসে স্টিভেন টেলরের ব্যাট থেকে।  

পরে রান তাড়ায় নামা ভারত ১০ রানেই হারায় দুই ওপেনারকে। বিরাট কোহলি গোল্ডেন ডাকে ফেরেন সৌরভ নেত্রভলকারের বলে। একই বোলারকে উইকেট দেন রোহিত শর্মাও। রিশাব পন্তও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। তিনি ফেরেন ১৮ রান করে।  

৩৯ রানেই ৩ উইকেট হারানো ভারতকে এরপর পথ দেখান সূর্যকুমার যাদব এবং শিবম দুবে। দুজনে চতুর্থ উইকেটে ৭২ রানের অপরাজিত জুটি গড়ে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। সূর্যকুমার ৪৯ বলে ৫০ এবং দুবে ৩৫ বলে ৩১ রান করে অপরাজিত থাকেন।  

news24bd.tv/SHS

পাঠকপ্রিয়