যে কারণে ভক্তকে মারতে গেলেন হারিস!

সংগৃহীত ছবি

যে কারণে ভক্তকে মারতে গেলেন হারিস!

অনলাইন ডেস্ক

২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেওয়ার পর থেকে সমালোচনার চাপে পিষ্ট হচ্ছে পাকিস্তান দল। সমর্থকরা ক্ষোভ প্রকাশ করছেন নানাভাবে। তবে হারিস রৌফের সঙ্গে যা হয়েছে, তা নিয়ে রীতিমতো ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

হারিসের সঙ্গে এক সমর্থকের ঝগড়ার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

যেখানে দেখা গেছে, নিজের স্ত্রীর সঙ্গে হোটেলে ফিরছিলেন পাকিস্তানি পেসার। এর মধ্যেই পাশের ছোট রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকজন পাকিস্তানি সমর্থক হারিসের উদ্দেশে কিছু একটা বলেন। যা শুনে ওই সমর্থকদের দিকে তেড়ে যান হারিস। কয়েকবার হাত তুলে মারতে যান তিনি।
আঙুল তুলে শাসাতেও দেখা যায় তাকে।

তবে সেখানে থাকা বাকিরা হারিসকে নিবৃত্ত করেন। পরে নিজের স্ত্রীর কাছে ফিরে গেলেও রাগ সংবরণ করতে পারেননি তিনি। তখনও ওই ব্যক্তিদের সঙ্গে কথার লড়াই চালিয়ে যান তিনি। ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়তেই সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে পাকিস্তানের ক্রিকেটাঙ্গনে। অনেকে হারিসের পক্ষে কথা বলছেন, আবার কেউ দলের বাজে পারফরম্যান্সের উদাহরণ দিয়ে দায় দিচ্ছেন হারিসকেই।

বিতর্ক ডালপালা মেলার আগেই অবশ্য মুখ খুলেছেন হারিস। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক পোস্ট করে পুরো ব্যাপারটি পরিষ্কার করেছেন তিনি, 'পাবলিক ফিগার হিসেবে আমরা মানুষের সধরনের প্রতিক্রিয়ার জন্য উন্মুক্ত। তারা চাইলে আমাদের সমর্থন করতে পারেন, আবার সমালোচনাও করতে পারেন। কিন্তু যখন বিষয়টা আমার বাবা-মা কিংবা পরিবারের ওপর আসে, তখন আমি জবাব দিতে দেরি করব না। সব পেশার মানুষদের ও তাদের পরিবারের প্রতি সম্মান দেখানো উচিত। '

ভিডিওটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কোথাও ধারণ করা হয়েছে। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচটি এখানেই খেলেছে পাকিস্তান দল। ম্যাচটি পাকিস্তান জিতলেও তা সুপার এইটে ওঠার জন্য যথেষ্ট হয়নি। এর আগে আসরে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের কাছে হেরে যায় তারা। পরে কানাডা ও আয়ারল্যান্ডকে হারালেও বিদায় ঠেকানো যায়নি।

এদিকে হারিসের সঙ্গে ঘটে যাওয়া এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান মহসিন নকভি। আজ এক টুইটে তিনি ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় লিখেছেন, 'হারিস রৌফের সঙ্গে যা হয়েছে তার নিন্দা জানাই। আমাদের খেলোয়াড়দের সঙ্গে এমন ব্যবহার কিছুতেই গ্রহণযোগ্য নয় এবং মেনে নেওয়া হবে না। যারা ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের উচিত দ্রুত হারিসের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেওয়া। যদি তা না হয়, তাহলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। '

হারিস এখন পিসিবির চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়। তবে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি তার চুক্তি বাতিল করেছিল পিসিবি। কারণ তিনি গত বছরের শেষ দিকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন। তবে ২৪ মার্চ ওই ঘটনাকে 'ভুল বোঝাবুঝি' আখ্যা দিয়ে ফের চুক্তিতে ফেরানো হয় হারিসকে। এবারের বিশ্বকাপে পাকিস্তানের অন্যতম সেরা বোলার ছিলেন তিনিই। চার ম্যাচে উইকেট নিয়েছেন ৭টি, ইকোনোমি রেট ৬.৭৩। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১০০তম উইকেটের দেখাও পেয়েছেন এবারের আসরেই। কিন্তু দলীয় ব্যর্থতার কারণে তার ব্যক্তিগত সাফল্য আড়ালে চলে গেছে।

news24bd.tv/কেআই

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়