আমলাদের একটি অংশ দুর্নীতিপরায়ণ হয়ে উঠেছে: সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ফাইল ছবি

আমলাদের একটি অংশ দুর্নীতিপরায়ণ হয়ে উঠেছে: সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

আমলাদের একটি অংশ দুর্নীতিপরায়ণ হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। দুর্নীতি প্রবৃদ্ধি ধরে রাখার প্রধান প্রতিবন্ধকতা বলেও জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) জাতীয় সংসদে ২০২৪–২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব বলেন। এসময় সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নের গতিপ্রকৃতি গত ১৬ বছর ধরে যেভাবে ধরে রেখেছেন তা বিশ্বের বিস্ময়।

বর্তমানে তার এ প্রবৃদ্ধি ধরে রাখার প্রধান প্রতিবন্ধক হচ্ছে দুর্নীতি। এই দুর্নীতির কারণে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে।

মোমেন বলেন, এই দুর্নীতির কারণে প্রকল্পগুলো যথা সময়ে শেষ হয় না। ফলে খরচ বাড়ে, জনগণের হয়রানি বাড়ে।

আমলাদের একটি অংশ দুর্নীতিপরায়ণ হয়ে উঠেছেন এবং তাতে জনগণের হয়রানি বাড়ছে।

ড. এ কে আবদুল মোমেনের মতে, প্রতি বছর সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সম্পদের হিসাব প্রদান বাধ্যতামূলক করা দরকার। সরকারি প্রকল্পের ব্যয় কমানো ও রাজস্ব বাড়ানোর দিকে নজর দেওয়ার তাগিদ দেন আবদুল মোমেন।

সাবেক এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জনগণ দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে অসহায়। উৎপাদন ঠিকঠাক থাকার পরও কেন সবকিছুর দাম বাড়ে, তা ভাবা দরকার। দুর্নীতিবাজদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনলেই দুর্নীতি কমবে বলেও মন্তব্য করেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ঢালাওভাবে কালো টাকা সাদা করার সুযোগের বিষয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, এতে সৎ করদাতারা নিরুৎসাহিত হবেন।

তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন সোনার বাংলা অর্জনে, সাদাকে সাদা, কালোকে কালো না বললে শেখ হাসিনা সরকারের প্রতি অবিচার করা হয়। অর্থমন্ত্রী বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে জনগণের প্রত্যাশা পূরণে যা যা করা প্রয়োজন তা করবেন বলে বিশ্বাস করি।

news24bd.tv/FA

এই রকম আরও টপিক