তীব্র লড়াইয়ে ড্র ফ্রান্স-নেদারল্যান্ডস ম্যাচ

তীব্র লড়াইয়ে ড্র ফ্রান্স-নেদারল্যান্ডস ম্যাচ

অনলাইন ডেস্ক

ইউরো কাপের শেষ ষোলোতে ওঠার লড়াইয়ে রাতে মাঠে নেমেছিল ইউরোপের দুই ফুটবল পরাশক্তি ফ্রান্স ও নেদারল্যান্ডস। তবে শেষ পর্যন্ত কোনো দলই গোল করতে পারেনি। একের পর এক সুযোগ নষ্ট করেছে। তাই দুই দলকে শেষ ষোলোতে ওঠার জন্য আরও অপেক্ষা করতে হবে।

 

ম্যাচটা প্রথমার্ধেই তিন গোলে এগিয়ে যেতে পারত ফ্রান্স। কিন্তু পারেনি, কারণ আঁতোয়ান গ্রিজমান একের পর এক সুযোগ নষ্ট করে গেলেন। গোল হলো না কোনো।

দ্বিতীয়ার্ধে এগিয়ে যেতে পারত নেদারল্যান্ডসও।

দুর্ভাগ্য তাদেরও। জাভি সিমন্স বল ফ্রান্সের জালে পাঠানোর পর সেটা বাতিল হয়ে যায় অফসাইডের কারণে। সিদ্ধান্তটা অবশ্য বিতর্কিত মনে হয়েছে।  

তবে গোল নষ্ট করার মহড়া আর বিতর্কিত অফসাইডের সিদ্ধান্তে শেষ পর্যন্ত ফ্রান্স-নেদারল্যান্ডস ম্যাচটা থেকে গেল ০-০ ড্র। এবারের ইউরোতে এটাই প্রথম গোলহীন ম্যাচ। তাতে শেষ ষোলোতে জায়গা নিশ্চিত করার অপেক্ষা বাড়ল দুই দলেরই।

লাইপজিগ স্টেডিয়ামে এই ম্যাচের একাদশে ছিলেন না ফ্রান্সের সবচেয়ে বড় তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রিয়ান ডিফেন্ডার কেভিন দানসোর সঙ্গে সংঘর্ষে নাক ভেঙে ফেলেন এমবাপ্পে। তবে ফ্রান্স দলের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছিল, এই ম্যাচে মাস্ক পরে খেলতে পারেন এমবাপ্পে। ফরাসি ফরোয়ার্ড বেঞ্চে বসেই কাটিয়েছেন পুরো ম্যাচ। মাঠে নামা আর হয়নি।

এমবাপ্পে খেলার পরেও আক্রমনেভাগে ফিনিশিংয়ের দুর্বলতা চোখে পড়েছিল ফ্রান্সের আগের ম্যাচে। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে সেটা আরও বেশি করে চোখে পড়ল। গ্রিজমান যেন ভুল বুটজোড়া পরে চলে এসেছিলেন এ দিন। একবার তো ফাঁকা গোলমুখেও বল জালে ঠেলতে পারলেন না! ওদিকে নেদারল্যান্ডসের গোলরক্ষক বার্ট ভেরব্রুখেনও দারুণ সব সেভ করেছেন। ফলাফল প্রথমার্ধ গোলহীন।

দ্বিতীয়ার্ধে আবার সুযোগ নষ্ট করেন গ্রিজমান। তবে ফ্রান্সের এই একের পর এক আক্রমনের মাঝেই সুযোগ পেয়ে পাল্টা আক্রমনে গোল করে বসেন সিমন্স। মেম্ফিস ডিপাইয়ের শট ফ্রান্সের গোলরক্ষক মাইক মাইনন ঠেকিয়ে দেওয়ার পর ফিরতি বল দারুণ এক শটে জালে পাঠান সিমন্স। তবে ডাচ উদযাপনে বাধ সাধে রেফারির পতাকা, দেওয়া হয় অফসাইড। ভিএআর দীর্ঘ সময় নিয়ে যে অফসাইডের সিদ্ধান্ত বহাল রাখে। কিছুটা বিতর্কিত এই সিদ্ধান্তের পর দুই দলের কেউই আর পরিস্কার গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারেননি।

গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচটা ফ্রান্স খেলবে মঙ্গলবার, পোল্যান্ডের বিপক্ষে। একই দিন একই সময়ে অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে নেদারল্যান্ডস।
news24bd.tv/আইএএম

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়